خبرگزاری شبستان

پنج شنبه ۲ اسفند ۱۳۹۷

الخميس ١٦ جمادى الثانية ١٤٤٠

Thursday, February 21, 2019

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Thursday, February 5, 2015 নির্বাচিত সংবাদ : 19970

জাপানে সত্য ইসলামের প্রতি মনোযোগ বৃদ্ধি
আন্তর্জাতিক বিভাগ: আইএসআইএলের হাতে দুই জাপানি সাংবাদিক নিহত হওয়ার ঘটনায় এই দেশে প্রকৃত ও সত্য ইসলামের অবস্থান দুর্বল তো হয়ই নি বরং আরও শক্তিশালী হয়েছে।

জাপানে সত্য ইসলামের প্রতি মনোযোগ বৃদ্ধি

 

আন্তর্জাতিক বিভাগ: আইএসআইএলের হাতে দুই জাপানি সাংবাদিক নিহত হওয়ার ঘটনায় এই দেশে প্রকৃত ও সত্য ইসলামের অবস্থান দুর্বল তো হয়ই নি বরং আরও শক্তিশালী হয়েছে।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: আইএসআইএল সন্ত্রাসীদের হাতে দুই জাপানি সাংবাদিক নিহত হওয়ার ঘটনায় সে দেশে প্রকৃত ও সত্য ইসলামের অবস্থান দুর্বল হয় নি বরং আরও শক্তিশালী হয়েছে।

জাপানের ইসলামিক সেন্টারের নির্বাহী সম্পাদক, মুসা আমর টোকিওতে জাপান টাইমসের সঙ্গে একটি সাক্ষাৎকারে বলেন, জাপানি মানুষ ইসলামের প্রতি ইতিবাচক মনোভাব রাখে এবং তাদের মধ্যে যে কুসংস্কার ও খারাপ ধারণা আছে তা পশ্চিমাদের থেকে নেওয়া হয়।

জাপানের মোট 127 মিলিয়ন জনসংখ্যার মধ্যে মুসলমানদের সংখ্যা হচ্ছে এক লক্ষ।

এছাড়াও, মুসলমানদের জন্য সারা দেশ জুড়ে প্রায় 200টি মসজিদ রয়েছে।

জাপানের প্রাচীনতম মসজিদটি নাগোয়া শহরে অবস্থিত এবং তা 1931 সালে নির্মিত হয়।

বর্তমানে, বিশ্ববিদ্যালয়, ক্যাফে, হোটেল ও রেস্তোরাঁসমূহে হালাল খাবারের মেনু রয়েছে এবং বিমানবন্দরসমূহে নামাজখানা রয়েছে। উপরন্তু, জাপানে 100টি ইসলামী ইন্সটিটিউট আছে।

২০১৩ সালে জাপানি প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে, জাপান ও মুসলিম বিশ্বের মধ্যে অলঙ্ঘনীয় সম্পর্ক রয়েছে বলে বক্তব্য রাখেন।

কিন্তু আইএসআইএল সন্ত্রাসীদের হাতে জাপানের দুই নাগরিকের মৃত্যুদণ্ডের ভিডিও প্রকাশিত হওয়ার পর সেখানে উদ্বেগ বৃদ্ধি পেয়েছে।

এখন আশংকা করা হচ্ছে জাপানের জনগণ হয়ত মুসলমানদের প্রতি খারাপ ধারণা করবে। কিন্তু জাপানের জনগণ অনেক সচেতন এবং তারা প্রকৃত ও ভণ্ড মুসলমানদের পার্থক্যকে বোঝেন।

সুতরাং আইএসআইএল সন্ত্রাসীদের জঘন্য ও অমানবিক কর্মকাণ্ডকে তারা প্রকৃত ও সত্য ইসলামের সাথে কখনোই মিলিয়ে ফেলবে না। বরং বর্তমানে প্রকৃত ইসলামের প্রতি তাদের ভক্তি ও শ্রদ্ধা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিশ্লেষণও নোট :
|
|
|

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য