خبرگزاری شبستان

سه شنبه ۳۰ مهر ۱۳۹۸

الثلاثاء ٢٣ صفر ١٤٤١

Tuesday, October 22, 2019

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Sunday, July 19, 2015 নির্বাচিত সংবাদ : 21329

আলেমদের দায়িত্ব সম্পর্কে আয়াতুল্লাহ জাওয়াদি আমুলির দৃষ্টিভঙ্গি
কোরআন ও মায়ারেফ বিভাগ: আয়াতুল্লাহ জাওয়াদি আমুলি বলেন, আলেমদেরকে অবশ্যই ধৈর্য্যশীল এবং নৈতিক চরিত্রের অধিকারী হতে হবে। কেননা সেদিন গাদিরে খুমের ময়দানে রাসূল(সা.) যেভাবে বলেছিলেন, "من كنت مولاه فهذا علي مولاه" আমি যার মাওলা বা অভিভাবক এই আলীও তাদের মাওলা বা অভিভাবক। বর্তমানে ইমাম মাহদীও(আ.) বলবেন, من كنت مولاه فهذا الروحاني مولاه আমি যাদের মাওলা এই আলেমরাও তাদের মাওলা।

আলেমদের দায়িত্ব সম্পর্কে আয়াতুল্লাহ জাওয়াদি আমুলির দৃষ্টিভঙ্গি  

কোরআন ও মায়ারেফ বিভাগ: আয়াতুল্লাহ জাওয়াদি আমুলি বলেন, আলেমদেরকে অবশ্যই ধৈর্য্যশীল এবং নৈতিক চরিত্রের অধিকারী হতে হবে। কেননা সেদিন গাদিরে খুমের ময়দানে রাসূল(সা.) যেভাবে বলেছিলেন, "من كنت مولاه فهذا علي مولاه"  আমি যার মাওলা বা অভিভাবক এই আলীও তাদের মাওলা বা অভিভাবক। বর্তমানে ইমাম মাহদীও(আ.) বলবেন, من كنت مولاه فهذا الروحاني مولاه  আমি যাদের মাওলা এই আলেমরাও তাদের মাওলা।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: আয়াতুল্লাহ জাওয়াদি আমুলি বলেন, মহানভী হযরত মুহাম্মাদ(সা.) এত বেশী দায়ালু এবং জনদরদি ছিলেন যে তাদের সকল কথা তিনি মনযোগসহকারে শুনতেন এবং তাদের সমস্যার সমাধান করতেন।

তিনি বলেন: রাসূল(সা.) এত গুরুত্ব দিয়ে তাদের কথঅ শুনতে যে অসভ্য মুশরিকরা তাকে কান বলত। এসম্পর্কে পবিত্র কোরআনে বর্নিত হয়েছে: وَمِنْهُمُ الَّذِينَ يُؤْذُونَ النَّبِيَّ وَيَقُولُونَ هُوَ أُذُنٌ ۚقُلْ أُذُنُ خَيْرٍ لَّكُمْ

তাদের মধ্যে কিছু সংখ্যক লোক এমনও আছে যারা এই রাসূলকে যাতনা দেয় এবং বলে, ‘সে (নবী) বড় কর্ণপাতকারী।’ ‘তুমি বল, ‘কর্ণপাতকারী হওয়া তোমাদের জন্য কল্যাণকর।’ সে আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস রাখে এবং বিশ্বাসীদের (কথার) ওপর আস্থা রাখে, আর তোমাদের মধ্যে যারা বিশ্বাস স্থাপন করেছে তাদের জন্য অনুগ্রহস্বরূপ এবং যারা আল্লাহর রাসূলকে যাতনা দেয়, তাদের জন্য রয়েছে বেদনাদায়ক শাস্তি।

আব্্দ ইবনে নাওফিল মুনাফিক ছিল। সে মহানবী (সা.)-এর নিকট থেকে কথা শুনে লোকদের কাছে তার অনুকরণ করে দেখাত। আল্লাহ এ খবর তাঁর রাসূলকে দিলেন এবং তার বিবরণও বলে দিলেন যে, সে একজন কাল বর্ণের লোক, তার মাথার চুল ঘন এবং চোখ বড়। রাসূল (সা.) তাকে ডেকে জিজ্ঞেস করলেন, ‘তুমি কি এমন কর?’ সে শপথ করে বলল, ‘কখনই না।’

তিনি বললেন, ‘ঠিক আছে, আমি তোমার কথা মেনে নিচ্ছি।’ সে লোকজনের কাছে এসে বলতে লাগল, ‘মুহাম্মাদের বড় কান আছে। তার সম্বন্ধে যা যা বলেছিলাম তা সব শুনে ফেলেছে।’ তখন আয়াতটি অবতীর্ণ হয়।

473459

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য