خبرگزاری شبستان

چهارشنبه ۷ تیر ۱۳۹۶

الأربعاء ٤ شوّال ١٤٣٨

Wednesday, June 28, 2017

বিজ্ঞাপন হার

ইরানে জার্মান যুব দম্পতির ইসলাম গ্রহণ

মায়ারেফ বিভাগ: সম্প্রতি এক জার্মান যুব-দম্পতি ইরানের ধর্মীয় নগরী কোমে একজন প্রখ্যাত আলেমের উপস্থিতিতে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Sunday, February 12, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 25815

খোদাভীতি মানুষকে হারাম কর্ম থেকে বিরত রাখে: গবেষক
মায়ারেফ বিভাগ: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিশিষ্ট গবেষক ও ইসলামি চিন্তাবিদ হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন আলাভী তেহরানি বলেছেন যে, তাকওয়া বা খোদাভীতি মানুষকে হারাম কর্ম থেকে বিরত রাখে; এমনকি হারাম কর্ম সম্পাদনের চিন্তা থেকেও মানুষকে নিরাপদ রাখে।

খোদাভীতি মানুষকে হারাম কর্ম থেকে বিরত রাখে: গবেষক

 

মায়ারেফ বিভাগ: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিশিষ্ট গবেষক ও ইসলামি চিন্তাবিদ হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন আলাভী তেহরানি বলেছেন যে, তাকওয়া বা খোদাভীতি মানুষকে হারাম কর্ম থেকে বিরত রাখে; এমনকি হারাম কর্ম সম্পাদনের চিন্তা থেকেও মানুষকে নিরাপদ রাখে।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: ইরানের বিশিষ্ট গবেষক ও ইসলামি চিন্তাবিদ হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন আলাভী তেহরানি গতকাল শনিবার ১১ই ফেব্রুয়ারী এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে বলেন: মানুষ যদি নিজের ঈমান ও আকিদাকে যে কোন বিচ্যুতি ও বিপথগামীতা থেকে নিরাপদ রাখতে চায়, তবে তাকে অবস্যই তাকওয়া অবলম্বন করতে হবে। মুসলিম ও কাফিরের মধ্যে সবচেয়ে বড় ধরনের পার্থক্য হচ্ছে আল্লাহর প্রতি দৃঢ় ঈমান। রাসূলের যুগে অনেকে এসে বলত যে হে রাসূল! আমরা ঈমান এনেছি। কিন্তু তিনি তাদের উদ্দেশ্য করে বলতেন যে, না তোমরা বল যে, আমরা ইসলাম এনেছি। কেননা ঈমান অনেক গভীরতার বিষয়; আর তোমরা এখনও সে পর্যায়ে পৌছাতে পার নি।

তিনি পবিত্র কোরআনের সূরা রাদের ২৯ নং আয়াত উল্লেখ করে বলেন: কোরআনের এ আয়াত অনুসারে আল্লাহর প্রতি মানুষের ঈমান ও ন্যায় কর্ম সম্পাদন মানুষকে দুনিয়া ও পরকালে সফলকাম করে।

তিনি আরও বলেন: আমরা যদি হারাম কর্ম থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করতে চাই; তবে প্রথমে আমাদের ঈমানকে মজবুত করার পাশাপাশি নিজেদের অন্তরে আল্লাহর প্রতি ভয় জন্ম দিতে হবে। এমতাবস্থায় আমরা হারাম কর্মের কলুষতা থেকে নিজেদেরকে নিরাপদ রাখতে সক্ষম হব।

609329

বিশ্লেষণও নোট :
|
|
|

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য