خبرگزاری شبستان

سه شنبه ۶ تیر ۱۳۹۶

الثلاثاء ٣ شوّال ١٤٣٨

Tuesday, June 27, 2017

বিজ্ঞাপন হার

সৌদি আগ্রাসনের কারণে ইয়েমেনে ভয়াবহ কলেরা রোগের প্রকোপ

বিশ্বে সবচেয়ে মারাত্মক আকারে কলেরা রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে ইয়েমেনে। ইউনিসেফ এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ‘হু’র এক যৌথ বিবৃতিতে এ কথা বলা হয়েছে। এতে আরো বলা হয়েছে, প্রতিদিন দেশটিতে পাঁচ হাজার ব্যক্তি কলেরায় আক্রান্ত হচ্ছেন বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। এ ছাড়া, কলেরায় এ পর্যন্ত ১৩০০ ব্যক্তি মারা গেছেন।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Wednesday, March 22, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 26098

প্রতিরোধ সংগ্রামের মাধ্যমে ইরানি জনতা শত্রুদের সব চক্রান্ত ব্যর্থ করেছে: রাহবার
রাজনীতি বিভাগ: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা এবং ইসলামি বিপ্লবের রাহবার হযরত আয়াতুল্লাহ আল উযমা সাইয়েদ আলী খামেনেয়ী বলেছেন যে, ইরানে ইসলামি বিপ্লব সফলতার পর থেকেই শত্রুরা সব সময় ইরানি জাতির বিরুদ্ধে নানামুখী চক্রান্ত করে আসছে, কিন্তু জনগণ প্রতিরোধ সংগ্রামের মাধ্যমে শত্রুদের সব চক্রান্ত ব্যর্থ করেছে।

প্রতিরোধ সংগ্রামের মাধ্যমে ইরানি জনতা শত্রুদের সব চক্রান্ত ব্যর্থ করেছে: রাহবার

 

রাজনীতি বিভাগ: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা এবং ইসলামি বিপ্লবের রাহবার হযরত আয়াতুল্লাহ আল উযমা সাইয়েদ আলী খামেনেয়ী বলেছেন যে,  ইরানে ইসলামি বিপ্লব সফলতার পর থেকেই শত্রুরা সব সময় ইরানি জাতির বিরুদ্ধে নানামুখী চক্রান্ত করে আসছে, কিন্তু জনগণ প্রতিরোধ সংগ্রামের মাধ্যমে শত্রুদের সব চক্রান্ত ব্যর্থ করেছে।   

 

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: হযরত আয়াতুল্লাহ আল উযমা সাইয়েদ আলী খামেনেয়ী গতকাল মঙ্গলবার ২১শে মার্চ ইরানি নববর্ষের প্রথম দিনে দেশটির মাশহাদ শহরে হজরত ইমাম রেজা (আ.)'র মাজারে জিয়ারতকারীদের এক সমাবেশে বলেন: ১৯৭৮ সালে ইমাম খোমেনীর নেতৃত্বে ইসলামি বিপ্লব বিজয় লাভের পর থেকেই এ বিপ্লবের প্রতি নিজেদের সর্বশক্তি নিয়োগ করে প্রতিরক্ষা করেছে এবং প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থার মাধ্যমে ইসলামি বিপ্লবের শত্রুদের নানামুখি চক্রান্ত নস্যাত করে দিয়েছে। কিন্তু বিগত কয়েক বছর ধরে শত্রুরা ইরানি জাতির ওপর অর্থনৈতিক চাপ বৃদ্ধির মাধ্যমে ইসলামি প্রতাজন্ত্রী ব্যবস্থার ব্যাপারে মানুষের মধ্যে হতাশা সৃষ্টির পায়তারা করছে। কিন্তু প্রতিরোধমুলক অর্থনৈতিক কর্মসূচী বাস্তবায়নের মাধ্যমে আল্লাহর অশেষ রহমতে শত্রুদের সে চক্রান্তও ব্যর্থ হয়ে যাবে।

সর্বোচ্চ নেতা বলেন, অর্থনীতি শক্তিশালী না হলে সম্মান ও নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে না। জাতীয় ঐক্য এবং জনগণের সঙ্গে রাষ্ট্রের বন্ধন ছাড়া এসব বিষয় অর্জন করা সম্ভব নয়। এ সময় তিনি নতুন বছরে অর্থনীতিকে সর্বাগ্রে গুরুত্ব দেয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, দেশে উৎপাদন বাড়াতে হবে। দেশীয় পণ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি ও সমৃদ্ধির ওপর জোর দিয়ে তিনি বলেন, যেসব পণ্য দেশে উৎপন্ন হয় সেসব পণ্যের আমদানিকে ধর্মীয় ও আইনি দিক থেকে নিষিদ্ধ হিসেবে গণ্য করতে হবে। 

প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ইরানের সাফল্যের প্রশংসা করে তিনি বলেন, বিপ্লবের আগে ইরান সামরিক দিক থেকে পুরোপুরি বিদেশের ওপর নির্ভরশীল ছিল। কিন্তু আজ ইরান যে উন্নতি করেছে তাতে শত্রুরা হতাশ ও ক্ষুব্ধ।

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা এবং ইসলামি বিপ্লবের রাহবার জোর দিয়ে বলেন যে, ইরানি জাতির শত্রুরা বিগত কয়েক দশকে তাদের চক্রান্তে সফল হয় নি এবং আল্লাহর বিশেষ রহমতে আগামীতেও তারা সফলতার মুখ দেখবে না।

 

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য