خبرگزاری شبستان

شنبه ۲۸ مرداد ۱۳۹۶

السبت ٢٧ ذو القعدة ١٤٣٨

Saturday, August 19, 2017

বিজ্ঞাপন হার

কোম শহরের জুম্মার নামাজে শহীদ হোজাজির পরিবারকে সম্মাননা

প্রাদেশিক বিভাগ: আজ জুম্মার নামাজের পর এক অনুষ্ঠানে আয়াতুল্লাহ জান্নাতি ও আয়াতুল্লাহ সাঈদির উপস্থিতিতে শহীদ মোহসেন হোজাজির পরিবারকে সম্মানোনা জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Wednesday, April 26, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 26349

কিভাবে ইমাম মাহদীর বাহিনীর হুর হওয়া সম্ভব?!
মাহদাভিয়াত বিভাগ: হুরের একটি বড় বৈশিষ্ট হচ্ছে তিনি ভদ্র ছিলেন। মা ফাতিমা এবং আহলে বাইতের প্রতি তার ভক্তি শ্রদ্ধার ফলে তিনি হেদায়াত প্রাপ্ত হয়েছিলেন এবং আশুরার দিন ইয়াজিদের দল ছেড়ে ইমাম হুসাইনের দলে নিয়ে চলে আসতে পেরেছিলেন।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: মহান আল্লাহ পবিত্র কোরআনে বলছেন: فَاعْتَبِرُوا يَا أُولِي الْأَبْصَارِ অতএব, হে চক্ষুষ্মান ব্যক্তিগণ, তোমরা শিক্ষা গ্রহণ কর।

সুতরাং মানুষকে প্রতিটি বিষয় থেকে শিক্ষা নিতে হবে এবং সঠিক পথের অনুসরণ করতে হবে।

হুজ্জাতুল ইসলাম আকবারি বলেন, হুরের বাহিনীর সাথে ইমাম হুসাইনের বাহিনীর সাক্ষাত হয় যুহিসাম এলাকায় মুখোমুখী হয়, তখন হুরের বাহিনী পিপাসিত ছিল ইমাম তাদের উপস্থিতির কারণ জিজ্ঞের করা ছাড়াই তাদেরকে পানি পান করান।

এরপর যোহরের আযান হলে হুর ইমাম হুসাইনের পিছনে জামাতের সাথে নামাজ আদায় করেন এবং বলেন, আপিন হচ্ছেন মহানবী ও ইমাম আলী আর মা ফাতিমার সন্তান সুতরাং আপনার পিছনে নামাজ আদায় করা আমার জন্য বড় সৌভাগ্যের ব্যপার। এটা ছিল তার প্রথম ভদ্রতার পরিচয়।

নামাজ শেষে ইমাম হুসাইন হুরকে বলেন তুমি কি জন্যে এসেছ? হুর বলর: আমি ইবনে যিয়াদের নির্দেশে আপনাকে কুফায় প্রবেশে বাধা দিতে এসেছি। ইমাম বললেন: আমি কুফা বাসীর দাওয়াত পেয়েই এসেছি। হুরর বলল আপনাকে কুফায়ও পবেশে করতে দেব না এবং এখান ফেকে ফিরেও যেতে দেব না। ইমাম তখন বললেন: ثكلتك أمك؛  হে হতভাগা! তোমার মা তোমার শোকে কাতর হোক। হুর ভদ্রতা দেখিয়ে বলল: আপনি আমার কাছে অনেক সম্মানিত এবং আপনার মা হচ্ছে খাতুনে জান্নাত আমি আপনাকে কিছু বলব না। এটা ছিল হুরের দ্বিতীয় ভদ্রতা।

হুর তার এই ভদ্রতার কারণেই শেষ পর্যন্ত সত্য মিথ্যার পার্থক্য বুঝতে পেরেছিলেন এবং আশুরার সকালে ইয়াজিদের দল ছেড়ে ইমাম হুসাইনের দলে আসতে পেরেছিলেন।

আমরাও যদি আহলে বাইতকে ভালবাসী, মিথ্যাকে বর্জণ করার সাহস রাখি এবং তাদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হই তাহলে অব্যশই তাদরে সাহায্যকারী হতে পারব। এভাবে তওবা করে আমরা যদি গোনাহ ও অন্যায় পরিত্যাগ করে ইমামের কাছে ফিরে আসি, তিনি আমাদের গ্রহণ করবেন এবং আমরা যুগের ইমামের কোলে মাথা রেখে মৃত্যুবরণ করতে পারব।

624738

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য