خبرگزاری شبستان

شنبه ۲۸ مرداد ۱۳۹۶

السبت ٢٧ ذو القعدة ١٤٣٨

Saturday, August 19, 2017

বিজ্ঞাপন হার

কোম শহরের জুম্মার নামাজে শহীদ হোজাজির পরিবারকে সম্মাননা

প্রাদেশিক বিভাগ: আজ জুম্মার নামাজের পর এক অনুষ্ঠানে আয়াতুল্লাহ জান্নাতি ও আয়াতুল্লাহ সাঈদির উপস্থিতিতে শহীদ মোহসেন হোজাজির পরিবারকে সম্মানোনা জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Sunday, April 30, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 26378

মহানবীর(সা.) দৃষ্টিতে ইমাম হুসাইনের(আ.) মর্যাদা
চিন্তা ও দর্শন বিভাগ: মহানবী হিজরি চতুর্থ সনের তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.) তাঁর প্রাণপ্রিয় নাতী হযরত হাসান ও হুসাইন (আ.)-কে আনেক বেশি আদর করতেন। এ ছাড়াও তিনি বলেছেন, "নিশ্চয়ই হাসান ও হুসাইন জান্নাতে যুবকদের সর্দার। (জামে আত-তিরমিজি, হাদিস নং-৩৭২০)

হযরত ইমাম হুসাইন বিন আলী (আ.) ছয় বছরেরও কিছু বেশি সময় পর্যন্ত নানা বিশ্বনবী (সা.)'র সান্নিধ্য পেয়েছিলেন। হযরত সালমান ফারসী (রা.) বলেছেন, একদিন দেখলাম যে, রাসূল (সা.) হুসাইন (আ.)-কে নিজের জানুর ওপর বসালেন ও তাঁকে চুমু দিলেন এবং বললেন,

"তুমি এক মহান ব্যক্তি ও মহান ব্যক্তির সন্তান এবং মহান ব্যক্তিদের পিতা। তুমি নিজে ইমাম ও ইমামের পুত্র এবং ইমামদের পিতা। তুমি আল্লাহর দলিল বা হুজ্জাত ও আল্লাহর হুজ্জাতের পুত্র এবং আল্লাহর নয় হুজ্জাতের (বা নয় ইমামের) পিতা, আর তাদের সর্বশেষজন হলেন হযরত ইমাম মাহদী (আ.)।

বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.) ও ইমাম হুসাইনের মধ্যে আধ্যাত্মিকও খোদায়ী সম্পর্কের সর্বোচ্চ বর্ণনা ও সবচেয়ে আন্তরিকতার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে মহানবীর এই হাদিসে: হুসাইন আমা থেকে এবং আমি হুসাইন থেকে।

বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.) বলেছেন, যে-ই চায় আকাশগুলোর বাসিন্দা ও পৃথিবীর বাসিন্দাদের কাছে সবচেয়ে প্রিয় ব্যক্তিকে দেখতে, তাহলে তার উচিত হুসাইনের দিকে তাকানো। (মিজান আল হিকমাহ, হাদীস নং ৪৩২)

عنه صلى الله عليه و آله : أمّا الحُسَينُ فَإنَّهُ مِنّي وَ هُوَ ابني وَ وَلَدي وَ خَيرُ الخَلقِ بَعدَ أخيهِ وَ هُوَ إمامُ المُسلِمينَ وَ مَولى المُؤمِنينَ وَ خَليفَةُ رَبِّ العالَمينَ وَ غياثُ المُستَغيثينَ وَ كَهفُ المُستَجيرينَ وَ حُجَّةُ اللّهِ عَلى خَلقِهِ أجمَعينَ وَ هُوَ سَيِّدُ شَبابِ أهلِ الجَنَّةِ وَ بابُ نَجاةِ الاُمَّةِ أمرُهُ أمري وَ طاعَتُهُ طاعَتي مَن تَبِعَهُ فَإنَّهُ مِنّي وَ مَن عَصاهُ فَلَيسَ مِنّي.

রাসূল (সা.) বলেছেন, "আর হুসাইনের (আ.) বিষয়ে—সে আমার থেকে, সে আমার সন্তান, আমার বংশ, মানবজাতির মধ্যে তার ভাইয়ের পরে শ্রেষ্ঠ। সে মুসলমানদের ইমাম, মুমিনদের অভিভাবক, জগতসমূহের রবের প্রতিনিধি, তাদের সাহায্যকারী যারা সাহায্য চায়, তাদের আশ্রয় যারা আশ্রয় খোঁজে, সে আল্লাহর দলিল বা প্রমাণ গোটা সৃষ্টিজগতের জন্য, সে বেহেশতের যুবকদের সর্দার, উম্মতের নাজাতের দরজা। তার আদেশই হল আমার আদেশ, তার আনুগত্য করা হল আমারই আনুগত্য করা। যে-ই তাকে অনুসরণ করে সে আমার সাথে যুক্ত হয় এবং যে তার অবাধ্য হয় সে আমার সাথে যুক্ত হতে পারে না।" (আমালি শেখ সাদুক, পৃ: ১০১,মিজান আল হিকমাহ, হাদিস নম্বর-৪২৮)

বারাআ ইবনে আযিব বলেছেন, আমি রাসুলুল্লাহ (সা.)-কে দেখেছি ইমাম হুসাইন (আ.)-কে বহন করছেন এবং বলছেন, " হে আল্লাহ, নিশ্চয়ই আমি তাকে ভালবাসি, তাই আপনিও তাকে ভালবাসুন।" (মিজান আল হিকমাহ, হাদীস-৪২৯; বুখারি, হাদিস-২১৫০; মুসলিম, হাদিস-৬০৭৭

625409

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য