خبرگزاری شبستان

جمعه ۳۱ فروردین ۱۳۹۷

الجمعة ٥ شعبان ١٤٣٩

Friday, April 20, 2018

বিজ্ঞাপন হার

কেন ইমাম হুসাইনকে হেদায়েতের আলো এবং মুক্তির তরী বলা হয়?

মাহদাভিয়াত বিভাগ: চতুর্থ হিজরির তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Tuesday, May 23, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 26589

যতই কোরআনের নিকটবর্তী হব, ততই উত্তম জীবন গড়তে পারব
মায়ারেফ বিভাগ: মুসলিম জাহানের অন্যতম শীর্ষ মনীষী ও বিশিষ্ট মারজায়ে তাকলীদ হযরত আয়াতুল্লাহ আল উযমা মাকারেম শিরাজী বলেছেন যে, আমরা যতই কোরআনের নিকটবর্তী হব, ততই উত্তম জীবন গড়তে পারব এবং নানাবিধ সমস্যাদি থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করতে পারব। পক্ষান্তরে যতই কোরআন থেকে দূরে সরে যাব, ততই বিপথগামির শিকার হব।

যতই কোরআনের নিকটবর্তী হব, ততই উত্তম জীবন গড়তে পারব

মায়ারেফ বিভাগ: মুসলিম জাহানের অন্যতম শীর্ষ মনীষী ও বিশিষ্ট মারজায়ে তাকলীদ হযরত আয়াতুল্লাহ আল উযমা মাকারেম শিরাজী বলেছেন যে, আমরা যতই কোরআনের নিকটবর্তী হব, ততই উত্তম জীবন গড়তে পারব এবং নানাবিধ সমস্যাদি থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করতে পারব। পক্ষান্তরে যতই কোরআন থেকে দূরে সরে যাব, ততই বিপথগামির শিকার হব।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: হযরত আয়াতুল্লাহ আল উযমা মাকারেম শিরাজী আজ মঙ্গলবার ২৩শে মে ইরানের ধর্মীয় নগরী কোমে আলেমদের এক সমাবেশে বক্তৃতাকালে বলেন: মাহে রমজান আমাদের অত্যন্ত নিকটেই এসে গেছে। আর মাত্র দু’ অথবা তিনদিন পরই রহমত, বরকত ও মাগফেরাতের মাস রমজানুল মুবারক আমাদের মাঝে আগমণ করবে। তাই আর দেরি না করে মাহে রমজানের জন্য আমাদেরকে প্রস্তুতি গ্রহণ করা উচিত। হাদীসের বর্ণনা অনুযায়ী এ মাসের প্রতিটি আমল অন্যান্য মাসের তুলনায় দশগুণ সওয়াব পাওয়া যায়।

তিনি মাহে রমজানকে কোরআন নাজিলের মাস হিসেবে অভিহিত করে বলেন: পবিত্র রমজান মাসেই আল্লাহ মানুষের হেদায়েত ও দিকনির্দেশনার উদ্দেশ্যে আল কোরআনকে নাজিল করেছেন। তাই এ মাসে অধিক অধিক কোরআন তেলাওয়াত করা এবং কোরআনের অর্থ ও তাফসীর সম্পর্কে সমাজের মানুষকে অভহিত করা প্রত্যেক আলেম ও ধর্মীয় ব্যক্তিত্বদের ঈমানি দায়িত্ব।

মুসলিম জাহানের অন্যতম শীর্ষ মনীষী ও বিশিষ্ট মারজায়ে তাকলীদ আরও বলেন: আজকের দুনিয়ার মানুষ পবিত্র কোরআন থেকে দূরে সরে যাওয়ার কারণে নানাবিধ সমস্যায় জর্জরিত; তাই যদি আমরা এ সব সমস্যাদি থেকে মুক্তি পেতে চাই তবে অবস্যই পবিত্র কোরআনকে আকড়ে ধরতে হবে।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য