خبرگزاری شبستان

جمعه ۳۱ فروردین ۱۳۹۷

الجمعة ٥ شعبان ١٤٣٩

Friday, April 20, 2018

বিজ্ঞাপন হার

কেন ইমাম হুসাইনকে হেদায়েতের আলো এবং মুক্তির তরী বলা হয়?

মাহদাভিয়াত বিভাগ: চতুর্থ হিজরির তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Thursday, June 15, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 26736

মানুষকে নিয়ে আমিরুল মু’মিনিনের দুটি বড় চিন্তা
চিন্তা ও দর্শন বিভাগ: হে জনতা আমি তোমাদের জন্য যে দুটি জিনিসের বেশী ভয় পাই তা হচ্ছে নফসের অনুসরণ আর দীর্ঘ আশা। এই দুটি তোামদেরকে ধ্বংসের দিয়ে নিয়ে যাবে।

মানুষকে নিয়ে আমিরুল মু’মিনিনের দুটি বড় চিন্তা      

চিন্তা ও দর্শন বিভাগ: হে জনতা আমি তোমাদের জন্য যে দুটি জিনিসের বেশী ভয় পাই তা হচ্ছে নফসের অনুসরণ আর দীর্ঘ আশা। এই দুটি তোামদেরকে ধ্বংসের দিয়ে নিয়ে যাবে।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: আমিরুল মু’মিনিন হযরত আলী ইবনে আবি তালিব নাহজুল বালাগার ৪৪ নং খোতবায় বলেছেন: আমি তোমাদেরকে নফসের অনুসরণ আর দীর্ঘ আশা আকাঙ্খা থেকে দূর থাকার নির্দেশ দিচ্ছি।

ইমাম বলেছেন:

«اءَيُّهَا النَّاسُ إِنَّ اءَخْوَفَ مَا اءَخَافُ عَلَيْكُمُ اثْنَانِ: اتِّباعُ الْهَوَى ، وَ طُولُ الْاءَمَلِ، فَاءَمَّا اتِّبَاعُ الْهَوَى فَيَصُدُّ عَنِ الْحَقِّ، وَ اءَمَّا طُولُ الْاءَمَلِ فَيُنْسِي الْآخِرَةَ، اءَلا وَ إ نَّ الدُّنْيَا قَدْ وَلَّتْ حَذَّاءَ فَلَمْ يَبْقَ مِنْهَا إ لا صُبَابَةٌ كَصُبَابَةِ الْإِنَاءِ اصْطَبَّهَا صَابُّهَا، اءَلا وَ إِنَّ الْآخِرَةَ قَدْ اءَقْبَلَتْ، وَ لِكُلِّ مِنْهُمَا بَنُونَ، فَكُونُوا مِنْ اءَبْنَاءِ الْآخِرَةِ وَ لا تَكُونُوا مِنْ اءَبْنَاءِ الدُّنْيَا فَإِنَّ كُلَّ وَلَدٍ سَيُلْحَقُ بِاءَبِيهِ يَوْمَ الْقِيَامَةِ، وَ إِنَّ الْيَوْمَ عَمَلٌ وَ لا حِسَابَ، وَ غَدا حِسَابٌ وَ لاَ عَمَلَ

হে জনগণ আমি ভয় পাই যে তোমরা দুটি জিনিসের কবলে পড়কে এবং তা তোমাদের ধ্বংসের কারণ হবে। আর তা হচ্ছে নফসের তাড়না আর দীর্ঘ আশা। নফসের তাড়না তোমাদেরকে সত্যেল পথ থেকে বিচ্যূত করবে আর দীর্ঘ আশঅ তোমাদেরকে আখিরাতের স্মরণ থেকে দূরে সরিয়ে দিবে। যেনে রাখ দুনিয়া শেষ হয়ে যাবে যেভাবে পত্রের পানি পড়ে যায় এবং তার তলায় সামান্য তলানি পড়ে থাকে। ঠিক তেমনই কিছু থাকবে। আখিরাত তোমাদের নিকটবর্তী হচ্ছে সুতরাং তোমরা দুনিয়ার সন্তান না হয়ে আখিরাতের সন্তান হও। কেননা সকল সন্তানই তার পিতার দিকে ছুটে যায়। দুনিয়া হচ্ছে আমলের স্থান আর আখিরাত হচ্ছে হিসাবের স্থান। সুতরাং হিসাবের জন্য প্রস্তুত হও।

635515

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য