خبرگزاری شبستان

جمعه ۳۱ فروردین ۱۳۹۷

الجمعة ٥ شعبان ١٤٣٩

Friday, April 20, 2018

বিজ্ঞাপন হার

কেন ইমাম হুসাইনকে হেদায়েতের আলো এবং মুক্তির তরী বলা হয়?

মাহদাভিয়াত বিভাগ: চতুর্থ হিজরির তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Friday, June 16, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 26739

ইয়েমেনে প্রতি ৩৫ সেকেন্ডে একটি শিশু কলেরায় আক্রান্ত হচ্ছে’
ইয়েমেনে সৌদি জোটের আগ্রাসনকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট কলেরার প্রকোপ মারাত্মক আকার ধারণ করেছে এবং প্রতি ৩৫ সেকেন্ডে একটি শিশু এ রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। শিশু বিষয়ক সংস্থা সেইভ দ্যা চিলড্রেনের ইয়েমেনের পরিচালক গ্রান্ট প্রিরিটচার্ড এ তথ্য দিয়েছেন।

‘ইয়েমেনে প্রতি ৩৫ সেকেন্ডে একটি শিশু কলেরায় আক্রান্ত হচ্ছে’

ইয়েমেনে সৌদি জোটের আগ্রাসনকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট কলেরার প্রকোপ মারাত্মক আকার ধারণ করেছে এবং প্রতি ৩৫ সেকেন্ডে একটি শিশু এ রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। শিশু বিষয়ক সংস্থা সেইভ দ্যা চিলড্রেনের ইয়েমেনের পরিচালক গ্রান্ট প্রিরিটচার্ড এ তথ্য দিয়েছেন।

তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ইয়েমেন চূড়ান্ত বিপর্যয়ের মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছে। দেশটিতে দুর্ভিক্ষ অবস্থা বিরাজ করছে এবং অব কাঠামো ভেঙ্গে পড়েছে এ দুই মিলে কলেরার বিস্তার বাড়িয়ে দিয়েছে বলে জানান তিনি।

সেইভ দ্যা চিলড্রেনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত দুই সপ্তাহে দেশটিতে কলেরা বিস্তারের গতি আগের তুলনায় প্রায় তিন গুণ বেড়েছে। অল্প বয়সীরা কলেরার মারাত্মক শিকারে পরিণত হচ্ছে উল্লেখ করে এতে আরো বলা হয়েছে, কলেরা অর্ধেক শিকারই হলো অনূর্ধ্ব ১৫ বছরের নিচে বয়সীরা। অথচ দু’ সপ্তাহ আগে এ হার ছিল ৪০ শতাংশ।

ইয়েমেনের ২২টি প্রদেশের মধ্যে ২০টিতেই ১৩ জুন পর্যন্ত ১,২৯,১৮৫ জন কলেরাসহ পেটের পীড়ায় আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে মারা গেছে ৯৪২ জন।  জাতিসংঘের শিশু তহবিল  ইউনিসেফ আশংকা করছে আগামী ছয় মাসের মধ্যে দেশটিতে আড়াই লাখ মানুষ কলেরায় আক্রান্ত হবে।#

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য