خبرگزاری شبستان

جمعه ۳۱ فروردین ۱۳۹۷

الجمعة ٥ شعبان ١٤٣٩

Friday, April 20, 2018

বিজ্ঞাপন হার

কেন ইমাম হুসাইনকে হেদায়েতের আলো এবং মুক্তির তরী বলা হয়?

মাহদাভিয়াত বিভাগ: চতুর্থ হিজরির তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Sunday, June 18, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 26748

ইয়েমেনে মানবিক বিপর্যের জন্য জাতিসংঘ দায়ী: হুথি আনসারুল্লাহ
দারিদ্রপীড়িত ইয়েমেনে সৌদির বর্বরোচিত আগ্রাসনের ফলে দেশটিতে যে মানবিক বিপর্যয়ের সৃষ্টি হয়েছে তার জন্য জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ দায়ী বলে জানিয়েছে হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন। আগ্রাসী শক্তির মোকাবেলায় নিজেদেরকে রক্ষা করার পূর্ণ অধিকার ইয়েমেনিদের রয়েছে বলেও জানিয়েছে সংগঠনটি।

ইয়েমেনে মানবিক বিপর্যের জন্য জাতিসংঘ দায়ী: হুথি আনসারুল্লাহ

 দারিদ্রপীড়িত ইয়েমেনে সৌদির বর্বরোচিত আগ্রাসনের ফলে দেশটিতে যে মানবিক বিপর্যয়ের সৃষ্টি হয়েছে তার জন্য জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ দায়ী বলে জানিয়েছে হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন। আগ্রাসী শক্তির মোকাবেলায় নিজেদেরকে রক্ষা করার পূর্ণ অধিকার ইয়েমেনিদের রয়েছে বলেও জানিয়েছে সংগঠনটি।

আনসারুল্লাহ মুখপাত্র আব্দুল সালাম আজ (শনিবার) বলেছেন, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের পক্ষ থেকে ইস্যু করা বিবৃতিগুলোর মাধ্যমে অনুপ্রাণিত হয়ে আগ্রাসী সৌদি বাহিনী ইয়েমেনে পাশবিক হামলা চালিয়ে যাচ্ছে এবং সবদিক থেকে অবরোধ করে রেখেছে। এর ফলে লাখ লাখ ইয়েমেনির অবর্ণনীয় কষ্ট বেড়েই চলছে এবং চলমান সংকটের রাজনৈতিক সমাধানের আশাও ক্রমশ ক্ষীণ হয়ে পড়ছে।

তিনি বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলো বাইরের আগ্রাসী শক্তির বিরুদ্ধে যেভাবে লড়াই চালিয়ে নিজেদেরকে সুরক্ষা দিয়ে থাকে তেমনি সৌদি আগ্রাসন রুখে দেয়ার জন্য ইয়েমেনি সেনাবাহিনী এবং জনপ্রিয় গণবাহিনীও  প্রয়োজনীয় সবকিছুই করবে।

হুথি নেতা আব্দুল সালাম বলেন, বিশ্বে শান্তি বজায় রাখার দায়িত্বে নিয়োজিত জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের জানা উচিৎ যে মার্কিন অস্ত্র এবং অর্থে মদদপুষ্ট সৌদির এ আগ্রাসন আন্তার্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য মারাত্মক হুমকি।

হুথির এ নেতা জোর দিয়ে আরো বলেন, ইয়েমেনে মহামারি আকারে কলেরা ছড়িয়ে পড়ার মধ্যদিয়ে দেশটির স্বাস্থ্য পরিস্থিতি ক্রমশ অবনতির দিকে যাওয়ায় তা নিরাপত্তা পরিষদের জন্য চরম লজ্জাজনক। অথচ বিশ্বে মানবাধিকার রক্ষার দাবিদার হিসেবে নিজেদেরকে জাহির করে থাকে তারা।

অন্যদিকে, ইয়েমেন যুদ্ধে লিপ্ত পক্ষগুলোর মধ্যে আলোচনা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি ইয়েমেনের বিরুদ্ধে অবরোধ অবরোধ অব্যাহত রাখার জন্য তিনি সৌদি আরবকে দায়ী করেন। গতকাল (বৃহস্পতিবার) জাতিসংঘের নিরাপত্তা নিরাপত্তা পরিষদ এক দীর্ঘ বিবৃতিতে সৌদি আরবের ওপর হামলা চালানো বন্ধ করতে হুথি এবং তার মিত্রদের ওপর আহ্বান জানানোর পর আনসারুল্লাহর পক্ষ থেকে এসব বক্তব্য এলো।#

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য