خبرگزاری شبستان

جمعه ۲۴ آذر ۱۳۹۶

الجمعة ٢٧ ربيع الأوّل ١٤٣٩

Friday, December 15, 2017

বিজ্ঞাপন হার

ইমাম মাহদীর(আ.) সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আমাদের দুনিয়া ও আখিরাতের কল্যাণ বয়ে আনে

মাহদাবিয়াত বিভাগ: আমাদের অন্তর যত বেশী ইমাম মাহদীর সাথে সম্পর্ক গড়ে তুলবে ততবেশী তার উপস্থিতি আমাদের জন্য স্পষ্টতর হবে। আর এটা আমাদের দুনিয়া ও আখিরাতের উন্নতির জন্য খুবই উপকারী।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Monday, July 03, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 26823

ইমাম মাহদীর (আ.) আবির্ভাবের পর কোরআন শিক্ষার ধরণ কেমন হবে?
মাহদাভিয়্যাত বিভাগ: ইমাম মাহদী (আ.) হলেন আল্লাহ ও রাসূলের (সা.) প্রতিশ্রুত শেষ জামানায় মানব জাতির পরিত্রাণদাতা ও ত্রাণকর্তা। তিনি বর্তমান যুগের আল্লাহ মনোনীত ইমাম ও পথপ্রদর্শক।

ইমাম মাহদীর (আ.) আবির্ভাবের পর কোরআন শিক্ষার ধরণ কেমন হবে?

মাহদাভিয়্যাত বিভাগ: ইমাম মাহদী (আ.) হলেন আল্লাহ ও রাসূলের (সা.) প্রতিশ্রুত শেষ জামানায় মানব জাতির পরিত্রাণদাতা ও ত্রাণকর্তা। তিনি বর্তমান যুগের আল্লাহ মনোনীত ইমাম ও পথপ্রদর্শক।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: মহান আল্লাহর নির্দেশে ইমাম মাহদী (আ.) পুনরায় আবির্ভূত হবেন এবং আমরা তাকে অতি সহজেই দেখতে পাব। তিনি যখন আবির্ভূত হবেন, তখন এ পৃথিবী আবার ন্যায় ও ইনসাফে পরিপূর্ণ হবে।

একটি বিষয় আমাদের সকলেরই জানার বিশেষ আগ্রহ রয়েছে; তা হচ্ছে তিনি আবির্ভূত হওয়ার পর পবিত্র কোরআন শিক্ষার ধরণ কেমন হবে এবং মানুষ কিভাবে কোরআন শিক্ষা করবে। যেহেতু পবিত্র কোরআন হল আল্লাহর পক্ষ থেকে নাযিলকৃত সর্বশেষ ও পূর্ণাঙ্গ আসমানি কিতাব এবং মানব জীবনে প্রয়োজনীয় যাবতীয় বিষয়াদি এ কিতাবে যথাযথভাবে বর্ণিত হয়েছে।

এ সম্পর্কে আমিরুল মু’মিনিন আলী (আ.) থেকে একটি হাদীস বর্ণিত হয়েছে, এ হাদীসে তিনি উল্লেখ করেছেন,

«إذا قام قائم آل محمد ضرب فساطیط  لمن یعلم الناس القرآن علی ما أنزل الله جل جلاله؛

অর্থাৎ যখন আমাদের বংশের আল কায়েম তথা ইমাম মাহদী আবির্ভূত হবেন, তখন বিভিন্ন স্থানে তাবু নির্মিত হবে এবং সেখানে পবিত্র কোরআন শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা থাকবে।

সূত্র: আল এরশাদ, ২য় খণ্ড, পৃ. ৩৮৬ 

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য