خبرگزاری شبستان

جمعه ۲۴ آذر ۱۳۹۶

الجمعة ٢٧ ربيع الأوّل ١٤٣٩

Friday, December 15, 2017

বিজ্ঞাপন হার

ইমাম মাহদীর(আ.) সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আমাদের দুনিয়া ও আখিরাতের কল্যাণ বয়ে আনে

মাহদাবিয়াত বিভাগ: আমাদের অন্তর যত বেশী ইমাম মাহদীর সাথে সম্পর্ক গড়ে তুলবে ততবেশী তার উপস্থিতি আমাদের জন্য স্পষ্টতর হবে। আর এটা আমাদের দুনিয়া ও আখিরাতের উন্নতির জন্য খুবই উপকারী।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Saturday, July 29, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 26966

চালু হলো ইরানের জাতীয় মহাকাশ-কেন্দ্র : কোন্ কোন্ সুবিধা রয়েছে এতে?
বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা)’র পবিত্র আহলে বাইতের অন্যতম সদস্য হযরত ইমাম রেজা (আ)’র পবিত্র জন্ম-বার্ষিকীর প্রাক্কালে উদ্বোধন করা হয়েছে ইরানের জাতীয় মহাকাশ স্টেশন।

চালু হলো ইরানের জাতীয় মহাকাশ-কেন্দ্র : কোন্ কোন্ সুবিধা রয়েছে এতে?

বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা)’র পবিত্র আহলে বাইতের অন্যতম সদস্য হযরত ইমাম রেজা (আ)’র পবিত্র জন্ম-বার্ষিকীর প্রাক্কালে উদ্বোধন করা হয়েছে ইরানের জাতীয় মহাকাশ স্টেশন।

ইরানের ইসলামী রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ইসলামী বিপ্লবের রূপকার ইমাম খোমেনী (র)’র নামে এ স্টেশনের নাম দেয়া হয়েছে ইমাম খোমেনী (র) জাতীয় মহাকাশ কেন্দ্র।

 

গতকাল (বৃহস্পতিবার) ইরানের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি রকেট ‘সিমোরগ’ উৎক্ষেপণের মাধ্যমে চালু করা হয় এই মহাকাশ কেন্দ্র। উপগ্রহ বহনে সক্ষম রকেট ‘সিমোরগ’ তৈরি করা হয়েছে নানা ধরনের ইরানি উপগ্রহ কক্ষপথে নিয়ে যাওয়ার জন্য।

 

এই প্রথম ইরান এ ধরনের ভূমি-কেন্দ্রিক মহাকাশ-কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করল। উপগ্রহ বহনে সক্ষম নানা ধরনের রকেট তৈরির প্রাথমিক কাজসহ সেসবের উৎক্ষেপণ, নিয়ন্ত্রণ ও পরিচালনা করা যাবে এই স্টেশন বা কেন্দ্র ব্যবহার করে।

 

অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা ও যন্ত্রপাতি সজ্জিত এই মহাকাশ-কেন্দ্র চূড়ান্ত পর্যায়ে এল.ই.ও অক্ষে (বা গ্রহ-তারকার অবস্থানের বিশেষ গভীর স্তরে)  ইরানের সব ধরনের চাহিদা মেটাতে সক্ষম। এই কেন্দ্র থেকে একই সময়ে কয়েকটি উপগ্রহবাহী রকেট উৎক্ষেপণ করতে পারবে ইরান। 

 

উপগ্রহ বহনে সক্ষম ইরানি রকেট ‘সিমোরগ’ সর্বোচ্চ আড়াই’শ কেজি ওজনের উপগ্রহগুলোকে ভূপৃষ্ঠ থেকে ৫০০ কিলোমিটার দূরের অক্ষে স্থাপন করার ক্ষমতা রাখে।

 

বিশ্লেষণও নোট :
|
|
|

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য