خبرگزاری شبستان

سه شنبه ۲۱ آذر ۱۳۹۶

الثلاثاء ٢٤ ربيع الأوّل ١٤٣٩

Tuesday, December 12, 2017

বিজ্ঞাপন হার

ইমাম মাহদীর(আ.) জ্ঞানের প্রকৃতি ও উতস

মাহদাবিয়াত বিভাগ: ইমাম জাফর সাদিক (আ.) বলেছেন: জ্ঞান-বিজ্ঞানের ২৭টি অক্ষর রয়েছে নবীগণ যা এনেছেন তা হচ্ছে মাত্র ২টি অক্ষর এবং জনগণও এই দুই অক্ষরের বেশী কিছু জানে না। যখন আমাদের কায়েম কিয়াম করবে বাকি ২৫টি অক্ষর বের করবেন এবং মানুষের মধ্যে তা প্রচার করবেন। অতঃপর ওই দু’অক্ষরকেও তার সাথে যোগ করে মানুষের মাঝে প্রচার করবেন।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Monday, September 18, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 27344

প্রকৃত মুসলমানের পরিচয় কি?
মায়ারেফ বিভাগ: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের খ্যাতনামা ইসলামি গবেষক ও চিন্তাবিদ হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন মুহাম্মাদ বাকের আলাভী তেহরানি বলেছেন যে, একজন প্রকৃত ও ঈমান মুসলিম কখনও গালিগালাজ ও অকথ্য ভাষার মাধ্যমে নিজের মুখ ও ভাষাকে কলুষিত করে না।

প্রকৃত মুসলমানের পরিচয় কি?

মায়ারেফ বিভাগ: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের খ্যাতনামা ইসলামি গবেষক ও চিন্তাবিদ হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন মুহাম্মাদ বাকের আলাভী তেহরানি বলেছেন যে, একজন প্রকৃত ও ঈমান মুসলিম কখনও গালিগালাজ ও অকথ্য ভাষার মাধ্যমে নিজের মুখ ও ভাষাকে কলুষিত করে না।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন মুহাম্মাদ বাকের আলাভী তেহরানি বলেন: পবিত্র ইসলামের শিক্ষা অনুযায়ী গালিগালাজ বা অকথ্য ও অসৌজন্য কথাবার্তা জায়েজ না। আর এ ধরনের ভাষা ব্যবহারকারি ইসলামের দৃষ্টিতে গুনাহ বা পাপকর্ম সম্পন্নকারী ব্যক্তি হিসেবে চিহ্নিত। গালিগালাজ কখনও একজন মু’মিন ও ঈমানদার ব্যক্তির ভাষা হতে পারে না। কেননা আমাদের রাসূল (সা.) ছিলেন মানব জাতির জন্য সর্বোত্তম আদর্শ। তিনি আরবের কুরাইশ কাফেরদের অবর্ণনীয় অত্যাচার ও নির্যাতন সত্বেও আদৌ কোন দিন অকথ্য ভাষা প্রয়োগ করেন নি।

তিনি বলেন: একদা জনৈক ব্যক্তি ইমাম হাসান মুজতাবাকে (আ.) উদ্দেশ্য করে গালিগালাজ করে। এমতাবস্থায় ইমাম (আ.) মুসকি হেসে তাকে নিজের কাছে টেনে নিয়ে বলেন যে, ভাই তুমি হয়তো মুসাফির; যদি কোন সমস্যাতে থাক, তবে আমি তোমাকে সহায়তা করতে পারি। লোকটি ইমামের এমন মাধুর্যপূর্ণ ব্যবহারে খুশি হয়ে একজন ঈমানদার ব্যক্তিতে পরিণত হয়। সুতরাং কখনও গালিগালাজের জবাব গালিগালাজ দিয়ে দেয়া উচিত নয়। বরং উত্তম ও ভাল আচরণ অনেক সময় একজন বিপথগামী ব্যক্তিকে সুপথে আনতে পারে।

 

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য