خبرگزاری شبستان

سه شنبه ۳ مهر ۱۳۹۷

الثلاثاء ١٥ المحرّم ١٤٤٠

Tuesday, September 25, 2018

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Monday, October 09, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 27468

আমেরিকার দায়েশ নির্মূল করার কোন ইচ্ছাই নেই: হাসান নাসরুল্লাহ
আন্তর্জাতিক বিভাগ: লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে তৎপর উগ্র তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশ নির্মূল হোক তা চায় না আমেরিকা। মার্কিন সরকার সিরিয়ায় অবস্থিত দায়েশের ঘাঁটিগুলোতে এই জঙ্গি গোষ্ঠীকে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেছেন।

আমেরিকার দায়েশ নির্মূল করার কোন ইচ্ছাই নেই: হাসান নাসরুল্লাহ         

আন্তর্জাতিক বিভাগ: লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে তৎপর উগ্র তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশ নির্মূল হোক তা চায় না আমেরিকা। মার্কিন সরকার সিরিয়ায় অবস্থিত দায়েশের ঘাঁটিগুলোতে এই জঙ্গি গোষ্ঠীকে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেছেন।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: লেবাননের বেকা অঞ্চলের আল-আইন শহরে হিজবুল্লাহর দুই শহীদ যোদ্ধার দাফন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ এসব কথা বলেন।  গত সপ্তাহে সিরিয়ায় দায়েশ বিরোধী যুদ্ধে হিজবুল্লাহর অন্যতম কমান্ডার আলী আল-হাদি আল-আশেক ও এই আন্দোলনের যোদ্ধা মোহাম্মাদ নাসেরদিন শহীদ হন।

হিজবুল্লাহ মহাসচিব বলেন: আমেরিকা বিশ্বের একমাত্র দেশ যে চায় না দায়েশ পুরোপুরি নির্মূল হয়ে যাক। তিনি আরো বলেন, সিরিয়ার রাকা শহরে দায়েশের ঘাঁটিগুলোর পাশাপাশি জর্দান সীমান্তে অবস্থিত দায়েশের আরেকটি ঘাঁটির মাধ্যমে এই জঙ্গি গোষ্ঠীকে সহযোগিতা করছে আমেরিকা। মার্কিন সরকারই জর্দানে প্রশিক্ষণ দিয়ে দায়েশকে সিরিয়ায় ঢুকিয়ে দিয়েছিল।

সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ বলেন, সিরিয়ায় দায়েশের অবস্থানগুলোর দিকে সেদেশের সেনাবাহিনীকে অগ্রাভিযান চালাতে দিচ্ছে না মার্কিন বিমান বাহিনী। তারা দায়েশের অবস্থানে হামলা চালানোর নামে সিরিয়ার সেনা অবস্থানে হামলা চালাচ্ছে।

তবে আমেরিকার এ প্রচেষ্টা সত্ত্বেও দায়েশ বিরোধী যুদ্ধ অব্যাহত থাকবে বলে উল্লেখ করেন হিজবুল্লাহর মহাসচিব। তিনি বলেন, দায়েশের বিরুদ্ধে অভিযান বন্ধ করা হলে এই জঙ্গি গোষ্ঠী আবার সন্ত্রাসবাদ ও গণহত্যা শুরু করবে।  আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে আইএস নামে পরিচিতি পেয়েছে দায়েশ।

সিরিয়ায় উগ্র তাকফিরি জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশের বিরুদ্ধে লড়াই করছে লেবাননের হিজবুল্লাহ। বিশেষ করে লেবাননে দায়েশের অনুপ্রবেশ রুখতে সিরিয়া-লেবানন সীমান্ত জুড়ে শক্ত অবস্থান নিয়েছে এই প্রতিরোধ আন্দোলন।

660819  

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য