خبرگزاری شبستان

جمعه ۲۶ آیان ۱۳۹۶

الجمعة ٢٨ صفر ١٤٣٩

Friday, November 17, 2017

বিজ্ঞাপন হার

রোহিঙ্গা নারীদের ধর্ষণ করেছে মিয়ানমারের সেনারা: মানবাধিকার সংগঠন

আন্তর্জাতিক বিভাগ: রোহিঙ্গাদের জাতিগতভাবে নির্মূল করতে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সদস্যরা তাদের নারী ও মেয়েদের ধর্ষণ করেছে। তাদের ওপর যৌন সহিংসতাও চালানো হয়েছে। আজ সোমবার আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচের (এইচআরডব্লিউ) এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Wednesday, October 18, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 27507

কেন মোখতারকে ইমাম হুসাইনের(আ.) রক্তের বদলা গ্রহনকারী গণ্য করা হয় না?
চিন্তা ও দর্শন বিভাগ: পবিত্র কোরআনে সূরা বনী ইসরাইলের ৩৩ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছে; وَمَنْ قُتِلَ مَظْلُومًا فَقَدْ جَعَلْنَا لِوَلِيِّهِ سُلْطَانًا فَلَا يُسْرِفْ فِي الْقَتْلِ إِنَّهُ كَانَ مَنْصُورًا

কেন মোখতারকে ইমাম হুসাইনের(আ.) রক্তের বদলা গ্রহনকারী গণ্য করা হয় না?         

চিন্তা ও দর্শন বিভাগ: পবিত্র কোরআনে সূরা বনী ইসরাইলের ৩৩ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছে; وَمَنْ قُتِلَ مَظْلُومًا فَقَدْ جَعَلْنَا لِوَلِيِّهِ سُلْطَانًا فَلَا يُسْرِفْ فِي الْقَتْلِ إِنَّهُ كَانَ مَنْصُورًا

আর যে ব্যক্তি মজলুম অবস্থায় নিহত হয়েছে তার অভিভাবককে আমি কিসাস দাবি করার অধিকার দান করেছি। কাজেই হত্যার ব্যাপারে তার সীমা অতিক্রম করা উচিত নয়, তাকে সাহায্য করা হবে।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: ইমাম বাকির(আ.) এই আয়াতের তাফসীরে বলেছেন, ইমাম মাহদী হচ্ছেন ইমাম হুসাইনের রক্তের বদলা গ্রহণকারী এবং তিনিই তার হথ্যাকারীদের থেকে কিসাস নিবেন।

মোখতারকে কেন ইমাম হুসাইনের রক্তের বদলা গ্রহনকারী বলা যায় না এর উত্তর হচ্ছে, যে বা যারা কোন রক্তের বদলা নিবে তার মর্যাদা, পরিমাণ ও পরিধিকে তাকে বুঝতে হবে। আর ইমাম হুসাইন(আ.) যেহেতু আল্লাহর ওয়ালি সুতরাং তার মর্যাদা কেবল আল্লাহর ওলিরা্ই বুঝতে পারেন।

প্রসিদ্ধ হাদিস অনুসারে মহানবী(সা.) বলেছেন: اعلی ما عرف الله الا انا و انت و ما عرفنی الا الله و انت و لا یعرفک الا الله و انا» و یا در روایت دیگر آمده: «ان الله حقا لایعلمه الا انا و علی و ان لی حقا لایعلمه الا الله و علی و له حق لایعلمه الا الله و انا হে আলী আমি আর তুমি ছাড়া আল্লাহকে কেউ চেনে না, আল্লাহ আর তুমি ছাড়া আমাকে কেউ চেনে না আর আমি আল আল্লাহ ছাড়া তোমাকে কেউ চিনে না।

সুতরাং ইমাম হুসাইন(আ.) ও এই আহলে বাইতের একজন বড় সদস্য। সুতরাং তাকে চেনা সবার পক্ষে সম্ভব নয় এবং তার উপর যে জুলুম হয়েছে তাও সবার পক্ষে বোঝঅ সম্ভভ নয়। সুতরাং ইমাম মাহদী ছাড়া আর কেউই ইমাম হুসাইনের রক্তের বদলা গ্রহণকারী হিসাবে চিহ্নিত হতে পারে না।

তবে মোখতারসহ যারাই এই পথে চেষ্টা করেছেন তারা তাদের উত্তম পুরস্কার অবশ্যই পাবেন।

662003

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য