خبرگزاری شبستان

شنبه ۱ اردیبهشت ۱۳۹۷

السبت ٦ شعبان ١٤٣٩

Saturday, April 21, 2018

বিজ্ঞাপন হার

কেন ইমাম হুসাইনকে হেদায়েতের আলো এবং মুক্তির তরী বলা হয়?

মাহদাভিয়াত বিভাগ: চতুর্থ হিজরির তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Tuesday, November 14, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 27724

যেকোনো সামরিক পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত হিজবুল্লাহ’
লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর নির্বাহী পরিষদের উপ প্রধান শেখ নাবিল কাউক বলেছেন, তার সংগঠন যেকোনো সামরিক পরিস্থিতি মোকবেলায় প্রস্তুত রয়েছে। ইসরাইলকে দিয়ে লেবাননে সামরিক আগ্রাসন চালানোর জন্য সৌদি আরব যে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে তার প্রতি ইঙ্গিত করে নাবিল কাউক এ কথা বলেছেন।

‘যেকোনো সামরিক পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত হিজবুল্লাহ’

 

 লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর নির্বাহী পরিষদের উপ প্রধান শেখ নাবিল কাউক বলেছেন, তার সংগঠন যেকোনো সামরিক পরিস্থিতি মোকবেলায় প্রস্তুত রয়েছে। ইসরাইলকে দিয়ে লেবাননে সামরিক আগ্রাসন চালানোর জন্য সৌদি আরব যে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে তার প্রতি ইঙ্গিত করে নাবিল কাউক এ কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, “লেবাননের বিরুদ্ধে যেকোনো আগ্রাসনের প্রতিক্রিয়া কী হবে ইহুদিবাদী শত্রুরা তা ভালো করেই জানে। তারা সে পরিণতির সামাল দিতে পারবে না।” তিনি আরো বলেন, হিজবুল্লাহর অবস্থান অত্যন্ত সংহত, ফলে কোনোকিছুই হিজবুল্লাহকে দুর্বল করতে পারবে না। বিজয় নিশ্চিত করতে এবং যেকোনো আগ্রাসন ঠিকিয়ে দিতে হিজবুল্লাহ এখন সম্পূর্ণভাবে সক্ষম।

এর আগে, গত ১০ নভেম্বর দেয়া ভাষণে হিজবুল্লাহ মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেছিলেন, লেবাননের ওপর হামলা চালানোর জন্য ইসরাইলের কাছে আবেদন জানিয়েছে সৌদি আরব। হিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অজুহাতে সৌদি আরব লেবাননকে ধ্বংস করতে চায় বলেও তিনি মন্তব্য করেছিলেন।#

 

 

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য