خبرگزاری شبستان

سه شنبه ۲۱ آذر ۱۳۹۶

الثلاثاء ٢٤ ربيع الأوّل ١٤٣٩

Tuesday, December 12, 2017

বিজ্ঞাপন হার

ইমাম মাহদীর(আ.) জ্ঞানের প্রকৃতি ও উতস

মাহদাবিয়াত বিভাগ: ইমাম জাফর সাদিক (আ.) বলেছেন: জ্ঞান-বিজ্ঞানের ২৭টি অক্ষর রয়েছে নবীগণ যা এনেছেন তা হচ্ছে মাত্র ২টি অক্ষর এবং জনগণও এই দুই অক্ষরের বেশী কিছু জানে না। যখন আমাদের কায়েম কিয়াম করবে বাকি ২৫টি অক্ষর বের করবেন এবং মানুষের মধ্যে তা প্রচার করবেন। অতঃপর ওই দু’অক্ষরকেও তার সাথে যোগ করে মানুষের মাঝে প্রচার করবেন।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Tuesday, December 05, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 27879

রাসূলুল্লাহর (সা.) প্রতি দরুদ শরীফ পাঠের সওয়াব
মায়ারেফ: কোন ধর্মপ্রাণ ব্যক্তি যদি রাসূল (সা.) ও তার আহলে বাইত তথা বংশধরের প্রতি দরুদ শরীফ পাঠ করে; তাহলে গাছের পাতা যেভাবে ঝড়ে পড়ে সেভাবে তার সমস্ত গুনাহও একে একে ক্ষমা করে দেয়া হবে।

রাসূলুল্লাহর (সা.) প্রতি দরুদ শরীফ পাঠের সওয়াব

 

 

মায়ারেফ: কোন ধর্মপ্রাণ ব্যক্তি যদি রাসূল (সা.) ও তার আহলে বাইত তথা বংশধরের প্রতি দরুদ শরীফ পাঠ করে; তাহলে গাছের পাতা যেভাবে ঝড়ে পড়ে সেভাবে তার সমস্ত গুনাহও একে একে ক্ষমা করে দেয়া হবে।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: রাসূল (সা.) ও তার আহলে বাইতের (আ.) প্রতি দরুদ শরীফ পাঠের অপরিসীম সওয়াব রয়েছে। তাই প্রত্যেক মু’মিন নর-নারীর ঈমানী দায়িত্ব হচ্ছে আল্লাহর প্রদত্ত এ সুবর্ণ সুযোগ থেকে বঞ্চিত না করা। এখানে আমরা দরুদ শরীফ পাঠের সওয়াব সম্পর্কে রাসূল (সা.) বর্ণিত একটি হাদীস পাঠকদের উদ্দেশ্যে তুলে ধরছি-

একদা রাসূলুল্লাহ (সা.) আমিরুল মু’মিনিন আলীকে (আ.) উদ্দেশ্য করে বলেন যে, তুমি কি চাও তোমাকে একটি সুসংবাদ দিব? জবাবে তিনি বলেন: আমার পিতামাতা আপনার প্রতি উৎসর্গ হোক; আপনি সব সময় আমাদেরকে সুসংবাদ দিয়ে ধন্য করেন।

অত:পর রাসূল (সা.) বলেন: এই মাত্র জিবরাইল আমার নিকট এ খবর নিয়ে এসেছে যে, আমার উম্মতের মধ্য থেকে যে ব্যক্তি দরুদ পাঠকালে আমার আহলে বাইতকেও শামিল করবে; আসমানের দরজাসমূহ তার ইবাদত-বন্দেগী গ্রহণের জন্য উন্মুক্ত হবে। ফেরেশতারা দরুদ পাঠকারীর প্রতি সত্তর বার শান্তি বর্ষণ করবে এবং গাছের পাতা যেভাবে ঝড়ে পড়ে, সেভাবে (দরুদ পাঠকারীর) গুনাহও দূরীভূত হবে। আল্লাহ তার দরুদের জবাবে বলবেন: তোমাকে গ্রহণ করে নিলাম; হে আমার বান্দা।

অত:পর আল্লাহ ফেরেশতাদের উদ্দেশ্যে বলবেন: হে ফেরেশতারা! তোমরা আমার বান্দার প্রতি সত্তরবার শান্তি বর্ষণ করেছ কিন্তু আমি সাত শতবার তার প্রতি শান্তি বর্ষণ করেছি।

এবার রাসূল (সা.) বলেন: কিন্তু যদি শুধুমাত্র আমার প্রতি (আমার আহলেবাইতকে বাদ দিয়ে) দরুদ পাঠ করা হয়; তাহলে তার দোওয়া ও আসমানের মধ্যে সত্তর পর্দার ব্যবধান তৈরি হবে। অর্থাৎ সে দরুদ শরীফ আল্লাহর দরবারে পৌছাবে না।

সূত্র: আমালী, শেখ সাদুক, সওয়াবুল আমাল অধ্যায়, পৃ. ১৫৭।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য