خبرگزاری شبستان

شنبه ۱ اردیبهشت ۱۳۹۷

السبت ٦ شعبان ١٤٣٩

Saturday, April 21, 2018

বিজ্ঞাপন হার

হযরত আব্বাসের আদব ও আখলাক

মাহদাভিয়াত বিভাগ: হযরত আবুল ফজলিল আব্বাস (আলাইসাল্লাম) ছিলেন আমিরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)'র পুত্র তথা হযরত ইমাম হাসান ও ইমাম হুসাইন (আ.)'র সত ভাই। ২৬ হিজরির চতুর্থ শা'বান জন্মগ্রহণ করেছিলেন ইতিহাসের এই অনন্য ব্যক্তিত্ব। অনেক মহত গুণের অধিকারী ছিলেন বলে তাঁকে বলা হত আবুল ফাজল তথা গুণের আধার। চিরস্মরণীয় ও বরেণ্য এই মহামানবের জীবনের নানা ঘটনার মধ্যে রয়েছে শিক্ষণীয় অনেক দিক।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Sunday, December 10, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 27907

ইরান না থাকলে ইউরোপের সীমান্তে পৌঁছে যেত দায়েশ: শামখানি
রাজনীতি বিভাগ: ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব আলী শামখানি বলেছেন, তার দেশ হস্তক্ষেপ না করলে উগ্র তাকফিরি জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশ এতদিনে গোটা ইরাক ও সিরিয়া দখল করে ইউরোপের সীমান্তে পৌঁছে যেত।

ইরান না থাকলে ইউরোপের সীমান্তে পৌঁছে যেত দায়েশ: শামখানি

 রাজনীতি বিভাগ: ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব আলী শামখানি বলেছেন, তার দেশ হস্তক্ষেপ না করলে উগ্র তাকফিরি জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশ এতদিনে গোটা ইরাক ও সিরিয়া দখল করে ইউরোপের সীমান্তে পৌঁছে যেত।

ইরান সফররত ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে তেহরানে এক বৈঠকে এ মন্তব্য করেন শামখানি।  মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের নীতির সমালোচনা করে কোনো কোনো পশ্চিমা দেশ যেসব বক্তব্য দেয় তা নাকচ করে দিয়ে তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদ দমনে তেহরান দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।

ইরানের এই শীর্ষস্থানীয় নিরাপত্তা কর্মকর্তা বলেন, ইরাক ও সিরিয়া সরকারের অনুরোধে সাড়া দিয়ে দেশ দু’টিতে সামরিক উপদেষ্টার কাজ করেছে তেহরান। দায়েশ নির্মূলে ইরানের এই ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে বলে তিনি জানান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষ থেকে জেরুজালেম শহরকে অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার ব্যাপারেও কথা বলেন শামখানি। তিনি বলেন, জেরুজালেম ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডের অবিচ্ছেদ্য অংশ এবং এটি মুসলমানদের সম্পদ। ট্রাম্পের অজ্ঞতাপূর্ণ ঘোষণা ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিরুদ্ধে মুসলমানদের মধ্যে ঐক্য ও সংহতি জোরদার করবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সাক্ষাতে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, তার দেশ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জেরুজালেম সংক্রান্ত ঘোষণার বিরোধিতা করেছে। তেল আবিব থেকে নিজের দূতাবাস জেরুজালেমে নিয়ে যাওয়ার কোনো পরিকল্পনা ব্রিটেনের নেই বলেও তিনি জানান।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য