خبرگزاری شبستان

پنج شنبه ۲۶ مهر ۱۳۹۷

الخميس ٨ صفر ١٤٤٠

Thursday, October 18, 2018

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Monday, December 11, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 27920

মাহদাভিয়াতের অর্থ হচ্ছে বিশ্বের রাজনৈতিক চিত্রকে পরিবর্তন করা সম্ভব
মাহদাবিয়াত বিভাগ: আমরা যেহেতু ইমাম মাহদীর আবির্ভাবে বিশ্বাস রাখি তাই অন্যদের মত আমরা নিরাশ নই। আমরা বলি বিশ্বের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে পরিবর্তন করা সম্ভব। আমরা বিশ্বাস করি বিশ্বের জালিমদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়ানো সম্ভব।

মাহদাভিয়াতের অর্থ হচ্ছে বিশ্বের রাজনৈতিক চিত্রকে পরিবর্তন করা সম্ভব      

মাহদাবিয়াত বিভাগ: আমরা যেহেতু ইমাম মাহদীর আবির্ভাবে বিশ্বাস রাখি তাই অন্যদের মত আমরা নিরাশ নই। আমরা বলি বিশ্বের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে পরিবর্তন করা সম্ভব। আমরা বিশ্বাস করি বিশ্বের জালিমদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়ানো সম্ভব।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: ইমাম মাহদীর প্রতি বিশ্বাস আমাদেরকে জীবনে প্রতি আশাবদি করে এবং সর্বদা মানুষের মনে আশার আলো জ্বলিয়ে রাখে। আজ প্রতি শিয়া মুসলমান মনেপ্রাণে বিশ্বাস রাখে এবং জানে যে খুব তাড়াতাড়ি অথবা দেরিতেই হোক না কেন ইমাম মাহদী অবশ্যই আসবেন এবং গোটা বিশ্বকে ন্যায়পরায়ণতায় পরিপূর্ণ করবেন।

শিয়ারা এটা জানে এবং বিশ্বাস করে যে, জালিমরা সত্যবাদীদের উপর জুলুম করবে তবে সেই জুলুম অত্যাচার চিরস্থায়ী নয়। ইমাম মাহদী আসবেন এবং জালিমদেরকে নিপতা করবেন।

যখন ইমাম মাহদী আসবেন তখন জালিমরা সত্যের কাছে মাথা নত করতে বাধ্য হবে এবং সেদিন তাদের পরাজয় ঘটবে। সুতরাং সত্যের জয় চিরকালই হবে।

বিভিন্ন রেওয়ায়তে বর্ণিত হয়েছে যে, ইমাম মাহদীর (আ.) মহান বিপ্লবের প্রধান সাফল্য হচ্ছে সর্বজনীন ন্যায়পরায়ণতা। কায়েমে আলে মুহাম্মদের (আ.)-এর হুকুমতে সমাজের প্রতিটি স্তরে ন্যায়বিচার একটি মূলমন্ত্র হিসাবে বিরাজ করবে এবং ছোট, বড় সব ধরনের প্রতিষ্ঠানেই ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হবে। এমনকি মানুষের আচরণও ন্যায়ের ভিত্তিতে হবে।

ইমাম রেযা (আ.) এ সম্পর্কে বলেছেন: তিনি যখন কিয়াম করবেন পৃথিবী আল্লাহর নুরে আলোকিত হয়ে যাবে। তিনি ন্যায়ের মানদণ্ডকে এমনভাবে স্থাপন করবেন যে কেউ কারো প্রতি সামান্যতম জুলুম করতে পারবে না।

674776

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য