خبرگزاری شبستان

جمعه ۳۱ فروردین ۱۳۹۷

الجمعة ٥ شعبان ١٤٣٩

Friday, April 20, 2018

বিজ্ঞাপন হার

কেন ইমাম হুসাইনকে হেদায়েতের আলো এবং মুক্তির তরী বলা হয়?

মাহদাভিয়াত বিভাগ: চতুর্থ হিজরির তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Tuesday, December 19, 2017 নির্বাচিত সংবাদ : 27982

ধার্মিক ব্যক্তিরা পবিত্র কোরআনের সাথে গভীর সম্পর্ক গড়ে তোলে
মায়ারেফ বিভাগ: পবিত্র কোরআন মানব জাতির হেদায়েত ও দিকনির্দেশনার কিতাব। এ কিতাবে আল্লাহ তায়ালা মানুষের জীবনে প্রয়োজনীয় যাবতীয় বিষায়াদি অত্যন্ত সুষ্ঠু ও সুক্ষভাবে বর্ণনা করেছেন।

ধার্মিক ব্যক্তিরা পবিত্র কোরআনের সাথে গভীর সম্পর্ক গড়ে তোলে

 

মায়ারেফ বিভাগ: পবিত্র কোরআন মানব জাতির হেদায়েত ও দিকনির্দেশনার কিতাব। এ কিতাবে আল্লাহ তায়ালা মানুষের জীবনে প্রয়োজনীয় যাবতীয় বিষায়াদি অত্যন্ত সুষ্ঠু ও সুক্ষভাবে বর্ণনা করেছেন।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিশিষ্ট গবেষক ও চিন্তাবিদ হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন আলী আকবার রাশাদ গতকাল এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে বলেন: আল্লাহর প্রতি ঈমানদার ও ধার্মিক ব্যক্তিরা সব সময় পবিত্র কোরআনের সাথে অবিচ্ছেদ্য ও অবিচ্ছিন্ন সম্পর্ক গড়ে তোলে এবং তারা গোপনে ও প্রকাশ্যে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও কোরআনের মাধ্যমে আল্লাহর নিকট সাহায্য প্রার্থনা করে। তারা নিজেদের জীবনে পবিত্র কোরআনের নির্দেশাবলী যথাযথভাবে মেনে চলার প্রাণপণ চেষ্টা করে থাকে।

তিনি বলেন: আমিরুল মু’মিনিন আলীর (আ.) একজন সাহাবী তার উর্দ্ধৃতি দিয়ে বর্ণনা করেন যে, একদা এক রাতে ইমাম (আ.) ঘুম থেকে জাগ্রত হয়ে আকাশের দিকে দৃষ্টিপাত করে এভাবে প্র্রার্থনা করেন- হে আল্লাহ তারা কতইনা উত্তম যারা পার্থিব ভোগ-বিলাসকে ত্যাগ করে পরকালের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে। তারা এ দুনিয়ার সুখ-শান্তির পরিবর্তে পরকালের সুখ-শান্তিকে প্রাধন্য দিয়ে থাকে। আল্লাহর সান্নিধ্য ও সন্তুষ্টি তাদের নিকট সবচেয়ে বেশি গুরুত্বের অধিকারী।

এ বিশিষ্ট গবেষক ও চিন্তাবিদ আমিরুল মু’মিনিন ইমাম আলীকে (আ.) মু’মিন ও পরহেজগার ব্যক্তিদের জন্য অনুকরণীয় আদর্শ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন: আমরা যদি আধ্যাত্মিকতা ও আল্লাহর প্রতি ঈমানের স্বাদ গ্রহণ করতে চাই, তবে অবশ্যই ইমাম আলীকে (আ.) অনুসরণ করতে হবে।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য