خبرگزاری شبستان

جمعه ۳۱ فروردین ۱۳۹۷

الجمعة ٥ شعبان ١٤٣٩

Friday, April 20, 2018

বিজ্ঞাপন হার

কেন ইমাম হুসাইনকে হেদায়েতের আলো এবং মুক্তির তরী বলা হয়?

মাহদাভিয়াত বিভাগ: চতুর্থ হিজরির তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Wednesday, January 10, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 28140

ইমাম মাহদীর দলে যোগ দেয়ার পদ্ধতি
মাহদাভিয়াত বিভাগ: ইমাম মাহদীর গায়েবি সাহায্য যদি শিয়াদের জন্য না থাকত তাহলে শিয়ারা মোগলদের এক হামলাতেই মেষ হয়ে যেত। শুধুমাত্র ইমাম মাহদীর মদদ আছে বলেই শিয়রা এখনো বেচে আছে।

ইমাম মাহদীর দলে যোগ দেয়ার পদ্ধতি      

মাহদাভিয়াত বিভাগ: ইমাম মাহদীর গায়েবি সাহায্য যদি শিয়াদের জন্য না থাকত তাহলে শিয়ারা মোগলদের এক হামলাতেই মেষ হয়ে যেত। শুধুমাত্র ইমাম মাহদীর মদদ আছে বলেই শিয়রা এখনো বেচে আছে।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: হুজ্জাতুল ইসলাম আলী বলেন, মহান আল্লাহ যদি আমাদেরকে ইমাম মাহদীর সাথী হিসাবে মেনে নেন তাহলে কত বড় সম্মান ও মর্যাদা যে আমাদের দান করলেন তা আমাদের কল্পনায়ও আসবে না।

যেখানে ইমাম সাদিক(আ.) বলছেন: «لَوْ أَدْرَکْتُهُ لَخَدَمْتُهُ أَیامَ حَیاتِی؛ ا  আমি যদি ইমাম মাহদীর সময়কে অনুধাবন করতাম বা তার যুগের একজন নাগরিক হতাম তাহলে সারা জীভন তার গোলামি করতাম।

কাফয়ামি একটি হাদিস বর্ণনা করেছেন যাতে বলা হয়েছে, ইমাম মাহদীর চারপাশে সর্বদা তার সাহায্যকারীরা রয়েছেন তাদের প্রথম শ্রেণীতে রয়েছেন ৪ জন আওতাদ, দ্বিতীয় ধাপে রয়েছে ৭ জন আবদাল চতুর্থ ধাপে রয়েছে ৪০ জন নাকিব আর চুতুর্থ ধাপে রয়েছে ৩৬০ জন গায়েবী মানুষ। আর যে ৩১৩ জনের কথা বলা হয়েছে তারা হলেন ইমাম মাহদীর আবির্ভাবের পরের বিমেষ সাহায্যকারী। আর উপরে উল্লিখিত চার ধাপের সাহায্যকারীরা হলেন তার অন্তর্দানকালীন সময়ের।

দোয়া উম্মে দাউদে বলা হয়েছে: «اللَّهُمَّ صَلِّ عَلَی الْأَبْدَالِ وَ الْأَوْتَادِ»  হে আল্লাহ আওতাদ ও আবদালদের প্রতি দরুদ পাঠ করুন।

681500

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য