خبرگزاری شبستان

شنبه ۳۰ تیر ۱۳۹۷

السبت ٩ ذو القعدة ١٤٣٩

Saturday, July 21, 2018

বিজ্ঞাপন হার

ইমাম মাহদীর (আ.) সাথে আত্মিক সম্পর্ককে জোরদার করা জরুরী

মাহদাভিয়াত বিভাগ: ইমাম মাহদী(আ.) আল্লাহর হুজ্জাত তিনি আমাদের হেদায়াতের জন্য নির্ধারিত হয়েছেন। সুতরাং আমাদের জানতে হবে যে তিনি আমাদের কাছে কি চান এবং তার প্রতি আমাদের কর্তব্য কি।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Saturday, January 20, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 28208

মু’মিনের অন্তরে কষ্ট দেয়া কবিরাহ গুনাহ
মায়ারেফ বিভাগ: হাদীসে বর্ণিত হয়েছে যে, মু’মিনের অন্তর আল্লাহর আরশের সাথে সমতূল্য। কাজেই যদি কেউ বিনা কারণে কোন মু’মিন ব্যক্তিকে কষ্ট দেয় কিংবা তার অন্তরে আঘাত করে, তবে আল্লাহকেও কষ্ট দিয়েছে।

মু’মিনের অন্তরে কষ্ট দেয়া কবিরাহ গুনাহ

 

মায়ারেফ বিভাগ: হাদীসে বর্ণিত হয়েছে যে, মু’মিনের অন্তর আল্লাহর আরশের সাথে সমতূল্য। কাজেই যদি কেউ বিনা কারণে কোন মু’মিন ব্যক্তিকে কষ্ট দেয় কিংবা তার অন্তরে আঘাত করে, তবে আল্লাহকেও কষ্ট দিয়েছে।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তবিদ ও গবেষক হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন হুসাইনি গতকাল নৈতিকতার প্রশিক্ষণমূলক এক ক্লাসে বক্তৃতাকালে বলেন: আল্লাহ তায়ালা কখনও এমনটি পছন্দ করেন না যে, একজন মুসলমান ব্যক্তি অপর কোন মুসলমানকে অবজ্ঞা কিংবা উপহাস করবে। বরং এ ধরনের কাজ ইসলামের শরিয়াতের দৃষ্টি কবিরা গুনাহ হিসেবে বিবেচিত। কেননা অহংকারের বশবর্তি হয়ে অন্য মু’মিনের অন্তরে আঘাত করা এমনই এক মারাত্মক গুনাহ, তা কখনও ক্ষমা হবে না। যতদিন অন্তরে আঘাতপ্রাপ্ত ব্যক্তি মন থেকে আঘাতকারীকে ক্ষমা না করবে ততদিন স্বয়ং আল্লাহও উক্ত ব্যক্তির গুনাহ ক্ষমা করবেন না। কাজেই আল্লাহর প্রতি যাদের ঈমান ও বিশ্বাস আছে তাদেরকে সব সময় এ ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকা অপরিহার্য দায়িত্ব।

তিনি আরও বলেন: এ পৃথিবীতে মানুষ যা কিছুই করছে; অন্যের চোখে আড়াল করে অনেকে নানাবিধ অপকর্মে লিপ্ত। কিন্তু পরকালে প্রত্যেকের কর্ম প্রত্যেকের সম্মুখে স্পষ্ট হয়ে যাবে। তখন মানুষকে নিজ নিজ কর্মের জন্য আল্লাহর নিকট জবাবদিহি করতে হবে।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য