خبرگزاری شبستان

شنبه ۳۰ تیر ۱۳۹۷

السبت ٩ ذو القعدة ١٤٣٩

Saturday, July 21, 2018

বিজ্ঞাপন হার

ইমাম মাহদীর (আ.) সাথে আত্মিক সম্পর্ককে জোরদার করা জরুরী

মাহদাভিয়াত বিভাগ: ইমাম মাহদী(আ.) আল্লাহর হুজ্জাত তিনি আমাদের হেদায়াতের জন্য নির্ধারিত হয়েছেন। সুতরাং আমাদের জানতে হবে যে তিনি আমাদের কাছে কি চান এবং তার প্রতি আমাদের কর্তব্য কি।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Friday, February 02, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 28329

ঐক্য ও সংহতির মাধ্যমে শত্রুদের মোকাবেলা করতে হবে
রাজনীতি বিভাগ: ঐক্য ও সংহতি হচ্ছে মুসলিম জাতির সবচেয়ে মূল্যবান সম্পদ। আর শত্রুদের এ সম্পদকে টার্গেট করে মুসলিম জাতিকে দূর্বল করতে নানাবিধ চক্রান্তে লিপ্ত। তারা মুসলমানদের মধ্যে ভেদাভেদ ও বিভ্রান্তির বিস্তার ঘটাতে চায়, তাই আমাদেরকে শত্রুদের এ চক্রান্ত সম্পর্কে সজাগ ও সচেতন থাকা জরুরী।

ঐক্য ও সংহতির মাধ্যমে শত্রুদের মোকাবেলা করতে হবে

 

রাজনীতি বিভাগ: ঐক্য ও সংহতি হচ্ছে মুসলিম জাতির সবচেয়ে মূল্যবান সম্পদ। আর শত্রুদের এ সম্পদকে টার্গেট করে মুসলিম জাতিকে দূর্বল করতে নানাবিধ চক্রান্তে লিপ্ত। তারা মুসলমানদের মধ্যে ভেদাভেদ ও বিভ্রান্তির বিস্তার ঘটাতে চায়, তাই আমাদেরকে শত্রুদের এ চক্রান্ত সম্পর্কে সজাগ ও সচেতন থাকা জরুরী।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিশিষ্ট ইসলামি গবেষক ও চিন্তাবিদ হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন মাকাদ্দাম আজ ১লা ফেব্রুয়ারী ইমাম খোমেনীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে বলেন: ১৯৭৮ সালের ১১ই ফেব্রুয়ারী ইমাম খোমেনীর নেতৃত্বে ইরানের বুকে ইসলামি হুকুমত প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এ ইসলামি হুকুমত নানাবিধ বাধা-বিপত্তি ও শত্রুতাকে উপেক্ষা করে ৪০ বছরে প্রদর্পন করেছে। আর পেছনে সবচেয়ে কার্যকর ভূমিকা রেখেছে ইসলামি বিপ্লবের বর্তমান নেতা এবং ইমাম খোমেনীর সুযোগ্য উত্তরসূরী হযরত আয়াতুল্লাহ আল উযমা সাইয়েদ আলী খামেনেয়ীর বিচক্ষণ নেতৃত্ব এবং পাশাপাশি ইরানি জাতির মধ্যে সুদৃঢ় ঐক্য ও সংহতি। যখনই শত্রুরা ইসলামি বিপ্লবের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করেছে তখনই ইরানি জাতি নিজেদের সচেতনতা এবং ঐক্য ও সংহতির মাধ্যমে শত্রুদের সব চক্রান্তকে নস্যাত করে দিয়েছে।

তিনি অনৈক্য ও ভেদাভেদকে বর্তমান মুসলিম জাতির প্রধান সমস্যা হিসেবে উল্লেখ করে বলেন: পবিত্র কোরআনে আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে ঐক্য ও সম্মিলিত থাকার আদেশ দিয়েছেন। সর্বদা ভেদাভেদকে পরিহার করার মাধ্যমে পরস্পরের মধ্যে ভাতৃত্ব ও সংহতি বজায় রাখার উপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। কিন্তু মুসলিম জাতি আজ এ আদেশকে উপেক্ষা করার কারণে নানাবিধ সমস্যায় জর্জরিত।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য