خبرگزاری شبستان

پنج شنبه ۲۵ مهر ۱۳۹۸

الخميس ١٨ صفر ١٤٤١

Thursday, October 17, 2019

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Monday, February 5, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 28359

ইরাক থেকে মার্কিন সেনা আফগানিস্তানে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে
ইরাক থেকে মার্কিন সেনাদেরকে আফগানিস্তানে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। প্রতিদিনই সেখান থেকে মার্কিন সেনাদেরকে বিমানে করে আফগানিস্তানে নেয়া হচ্ছে। মার্কিন বার্তাসংস্থা এপি আজ (সোমবার) এ খবর দিয়েছে। তবে কতজন সেনাকে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে তা স্পষ্ট নয়।

ইরাক থেকে মার্কিন সেনা আফগানিস্তানে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে

 

ইরাক থেকে মার্কিন সেনাদেরকে আফগানিস্তানে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। প্রতিদিনই সেখান থেকে মার্কিন সেনাদেরকে বিমানে করে আফগানিস্তানে নেয়া হচ্ছে। মার্কিন বার্তাসংস্থা এপি আজ (সোমবার) এ খবর দিয়েছে। তবে কতজন সেনাকে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে তা স্পষ্ট নয়।

ইরাক সরকারের মুখপাত্র সা'দ আল হাদিসি বলেছেন, কিছু দিন আগেই ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার শুরু হয়েছে। মার্কিন সেনা কমানোর বিষয়ে ওয়াশিংটন ও বাগদাদের মধ্যে স্বাক্ষরিত এক সমঝোতার ভিত্তিতে এ পদক্ষেপ নিয়েছে আমেরিকা। ইরাকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের পতনের পর এ বিষয়ে সমঝোতা হয়েছে বলে তিনি জানান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা সংখ্যা বাড়ানোর পদক্ষেপ নিয়েছেন। গত এক বছরে আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা সংখ্যা বেড়ে প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। ২০১৭ সালের শুরুতে সেখানে মার্কিন সেনার সংখ্যা ছিল সাড়ে আট হাজার। এখন তা বেড়ে ১৪ হাজারে পৌঁছেছে। আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা সংখ্যা বাড়ানোর পাশাপাশি দায়েশ সন্ত্রাসীদের উপস্থিতিও জোরদার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ইরান বলেছে, মার্কিন সেনা উপস্থিতিকে যৌক্তিক হিসেবে ব্যাখ্যা করতে সিরিয়া থেকে দায়েশ সন্ত্রাসীদেরকে আফগানিস্তানে আনা হচ্ছে।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য