خبرگزاری شبستان

شنبه ۱ اردیبهشت ۱۳۹۷

السبت ٦ شعبان ١٤٣٩

Saturday, April 21, 2018

বিজ্ঞাপন হার

কেন ইমাম হুসাইনকে হেদায়েতের আলো এবং মুক্তির তরী বলা হয়?

মাহদাভিয়াত বিভাগ: চতুর্থ হিজরির তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Tuesday, February 13, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 28418

সিরিয়ার অভ্যন্তরে আলাদা রাষ্ট্র গড়ার ষড়যন্ত্র করছে আমেরিকা: রাশিয়া
রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, আমেরিকা সিরিয়ার অখণ্ডতা বিপদের মুখে ঠেলে দিচ্ছে। আজ (মঙ্গলবার) মস্কোতে বেলজিয়ামের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিদিয়ার রেন্ডার্সের সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

সিরিয়ার অভ্যন্তরে আলাদা রাষ্ট্র গড়ার ষড়যন্ত্র করছে আমেরিকা: রাশিয়া

 

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, আমেরিকা সিরিয়ার অখণ্ডতা বিপদের মুখে ঠেলে দিচ্ছে। আজ (মঙ্গলবার) মস্কোতে বেলজিয়ামের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিদিয়ার রেন্ডার্সের সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেছেন, আমেরিকা একতরফাভাবে বিপজ্জনক পদক্ষেপ গ্রহণের চেষ্টা করছে। এর মাধ্যমে সিরিয়ার অভ্যন্তরে ফোরাতের পূর্ব তীরে ইরাক সীমান্তে আরেকটি দেশ গড়ে তোলা হচ্ছে। 

তিনি বলেন, মার্কিনীদের তৎপরতা দেখে মনে হচ্ছে তারা সিরিয়ায় দীর্ঘ মেয়াদে অথবা চীরদিনের জন্য থেকে যেতে চায়। রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, সিরিয়ার শান্তি প্রক্রিয়ার সব পর্যায়েই কুর্দিদের অংশগ্রহণ চায় মস্কো। কারণ কুর্দিদের অংশগ্রহণ ছাড়া সিরিয়া সংকটের সমাধান সম্ভব নয়। 

আমেরিকা সিরিয়ায় সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোকে নানাভাবে সহযোগিতা করছে। কিন্তু তারা সন্ত্রাসবাদ দমনের স্লোগান তুলে সিরিয়ার উত্তরে সামরিক অবস্থান জোরদার করেছে। 

২০১১ সাল থেকে সিরিয়ায় বিদেশি মদদে সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে পড়ে। ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিরুদ্ধে সদা-সোচ্চার বাশার আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করতেই সেখানে সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে দেয়া হয়।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য