خبرگزاری شبستان

جمعه ۲۳ آذر ۱۳۹۷

الجمعة ٦ ربيع الثاني ١٤٤٠

Friday, December 14, 2018

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Sunday, March 11, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 28587

মার্কিন সমর্থন ছাড়া সৌদির পক্ষে যুদ্ধ করা অসম্ভব’
ইয়েমেনের প্রধানমন্ত্রী আবদেল আজিজ বিন হাবতুর বলেছেন, আমেরিকা সমর্থন না দিলে সৌদি আরবের পক্ষে ইয়েমেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা সম্ভব ছিল না। ইরানের প্রেস টিভিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি একথা বলেছেন।

‘মার্কিন সমর্থন ছাড়া সৌদির পক্ষে যুদ্ধ করা অসম্ভব’

 

 ইয়েমেনের প্রধানমন্ত্রী আবদেল আজিজ বিন হাবতুর বলেছেন, আমেরিকা সমর্থন না দিলে সৌদি আরবের পক্ষে ইয়েমেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা সম্ভব ছিল না। ইরানের প্রেস টিভিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি একথা বলেছেন।

হাবতুর বলেন, “আমেরিকার সমর্থন ছাড়া সৌদি আরব এবং উন্নয়নশীল কোনো দেশের পক্ষেই বিমান হামলা চালানো সম্ভব নয় কারণ বিমান হামলার সময় জঙ্গিবিমানগুলোতে জ্বালানি সরবরাহের প্রয়োজন হয়। এ কাজটিতে আমেরিকা সহযোগিতা দেয় যা কোনো গোপন বিষয় নয়। এছাড়া, আমেরিকা যে এ যুদ্ধে জড়িত তার আরেকটি প্রমাণ হচ্ছে- সৌদি আরবের কাছে মার্কিন অস্ত্র বিক্রি।”

ইয়েমেনের মন্ত্রী বলেন, যুদ্ধে রসদ সরবরাহের সমর্থন দেয়া ছাড়াও আমেরিকা সৌদি আরবের কাছে অত্যাধুনিক অস্ত্র বিক্রি করছে। তিনি স্পষ্ট করে বলেন, ইয়েমেন স্বাধীন হতে চায় এজন্য যুদ্ধের মুখে পড়েছে; আমেরিকা ও সৌদি আরবের অধীনস্থ হয়ে থাকলে আজ এ যুদ্ধের কবলে পড়তে হতো না। হাবতুর বলেন, তার দেশের অবশ্যই নিজের ভাগ্য নির্ধারণের অধিকার আছে।

২০১৫ সালের ২৬ মার্চ থেকে সৌদি আরব ইয়েমেনের বিরুদ্ধে সামরিক আগ্রাসন চালাচ্ছে। এ যুদ্ধের মধ্যেই গত বছরের মে মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সৌদি আরব সফর করেন এবং সেসময় তিনি রিয়াদের কাছে ১১ হাজার কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির চুক্তি করেছেন।

 

বিশ্লেষণও নোট :
|
|
|

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য