خبرگزاری شبستان

چهارشنبه ۲ خرداد ۱۳۹۷

الأربعاء ٩ رمضان ١٤٣٩

Wednesday, May 23, 2018

বিজ্ঞাপন হার

ইমাম মাহদীর নামে কোরআন খতম দেয়ার ফজিলত

মাহদাভিয়াত বিভাগ: রমজান মাসের ইফতার, সেহেরি এবং শবে কদরে আমাদের প্রধান দোয়া হচ্ছে ইমাম মাহদীর আবির্ভাবের জন্য দোয়া করা। আমরা যদি এটা করতে পারি তাহলে ইমাম মাহদীর প্রকৃত সৈনিক হতে পারব এবং আমাদের ম্যেধ তার জন্য ত্যাগ স্বীকার করার মনোভাব গড়ে উঠবে।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Monday, May 14, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 28948

লেবাননের হযরত মাসূমা পার্কে জামাকারান মসজিদের পতাকা
মাহদাভিয়াত বিভাগ: লেবাননের নাবতিয়া শহরে যখন কুম প্রদেশের সাংস্কৃতিক সপ্তাহ চলছে ঠিক ঐ সময়ে শহরটির হযরত মাসূমা পার্কে আধ্যাত্মিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পবিত্র জামকারান মসজিদের পতাকা উড্ডয়ণ করা হয়েছে।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: লেবানন একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশ, এই দেশেই রয়েছে হিজবুল্লাহর মত শক্তিশালী ও সঠিক ইসলামী দল। যারা আহলে বাইতের অনুসারী এবং সকল অন্যায় ও অত্যাচারের বিরুদ্ধে সদা সোচ্চার।

অনুষ্ঠানে ইরানি ও লেবাননের কয়েকজন কর্মকর্তার উপস্থিতিতে উপস্থিত ছিলেন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করা হয় যাতে কিছু ইরানী ও লেবাননের পন্ডিতরা আহলুল বাইতের উপর গজল পাঠ করেন।

হাওজা ইলমিয়া কুমের অধ্যাপক হুজ্জাতুল ইসলাম নাজারি মুনফারেদ এই অনুষ্ঠানের মেষ এক দোয়াতে বলেন: আশা করি আল্লাহর অশেষ রহমতে খুব শীঘ্রই আমরা কুদস শরীফে তথা বাইতুল মুকাদ্দাসে ইমাম জামানার পতাকা উড়াতে পারব।

জামকারান মসজিদ অতি পবিত্র ও গুরুত্বপূর্ণ একটি মসজিদ যা সরাসরি ইমাম মাহদীর নির্দেশে নির্মিত হয়েছে। আর একারণেই মুসলমানদের কাছে এই মসজিদের গুরুত্ব অত্যধিক।

হাসান বিন মুসলেহ বলেন: ইমাম মাহদী(আ.) আমাকে বলেছেন, সবাইকে বল তারা যেন এই মসজিদের সম্মান করে এবং বেশী করে এই মসজিদে আসে এবং ৪ রাকাত নামাজ আদায় করে।

মসজিদের সম্মানে যে দুই রাকাত নামাজ আদায় করতে হবে তার পদ্ধতি হচ্ছে: সূরা হামদের পর ৭ বার কুলহুয়াল্লাহু আহাদ পাঠ করা। এবং কুরু এবং সিজদার যিকির ৭ বার করে বলা।

আর ইমাম মাহদীর জন্য দুই রাকাত নামাজের পদ্ধতি হচ্ছে: সূরা হামদ শুরু করে ১০০ বার «ایاک نعبد و ایاک نستعین» ইয়য়া কা নায়বুদু ওয়া ইয়য়াকা নাসতাইন পাঠ করবে এরপর সম্পূর্ণ সুরা শেষ করে ১ বার সূরা কুলহুয়াল্লাহু আহাদ পাঠ করবে। এভাবে দুই রাকাত নামাজ শেষ করবে এবং কুরু ও সিজদার যিকির ৭ বার করে বলতে হবে।

নামাজ শেষে (لااله الا الله) লাইলাহা ইল্লাল্লাহ পাঠ করে মা ফাতিমার  (সা আ.) তসবিহ পাঠ করতে হবে। তারপর সিজদায় গিয়ে ১০০ বার الّلهُمَّ صَلِّ عَلَی مُحَمَّدٍ وَآلِ مُحَمَّدٍ আল্লাহুম্মা সাল্লি আলা মুহাম্মাদ ওয়া আলি মুহাম্মাদ পাঠ করতে হবে।

 

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য