خبرگزاری شبستان

شنبه ۲۸ مهر ۱۳۹۷

السبت ١٠ صفر ١٤٤٠

Saturday, October 20, 2018

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Wednesday, May 16, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 28954

কোরআনের দৃষ্টিতে ইমাম মাহদীর সৈনিকদের বৈশিষ্ট
মাহদাভিয়াত বিভাগ: সূরা মায়েদার ৫৪ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছে-হে মুমিনরা, তোমাদের মধ্যে যে নিজ ধর্ম থেকে ফিরে যাবে (সে আল্লাহর কোনো ক্ষতিই করতে পারবে না) অচিরে আল্লাহ এমন সম্প্রদায় সৃষ্টি করবেন, যাদেরকে তিনি ভালবাসবেন এবং তারা তাঁকে ভালবাসবে। তারা মুসলমানদের প্রতি বিনয়-নম্র হবে এবং কাফেরদের প্রতি কঠোর হবে। তারা আল্লাহর পথে জেহাদ করবে এবং কোন তিরস্কারকারীর তিরস্কারে ভীত হবে না। এটি আল্লাহর অনুগ্রহ-তিনি যাকে ইচ্ছা দান করেন। আল্লাহ প্রাচুর্য দানকারী, মহাজ্ঞানী।

কোরআনের দৃষ্টিতে ইমাম মাহদীর সৈনিকদের বৈশিষ্ট        

মাহদাভিয়াত বিভাগ: সূরা মায়েদার ৫৪ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছে-হে মুমিনরা, তোমাদের মধ্যে যে নিজ ধর্ম থেকে ফিরে যাবে (সে আল্লাহর কোনো ক্ষতিই করতে পারবে না) অচিরে আল্লাহ এমন সম্প্রদায় সৃষ্টি করবেন, যাদেরকে তিনি ভালবাসবেন এবং তারা তাঁকে ভালবাসবে। তারা মুসলমানদের প্রতি বিনয়-নম্র হবে এবং কাফেরদের প্রতি কঠোর হবে। তারা আল্লাহর পথে জেহাদ করবে এবং কোন তিরস্কারকারীর তিরস্কারে ভীত হবে না। এটি আল্লাহর অনুগ্রহ-তিনি যাকে ইচ্ছা দান করেন। আল্লাহ প্রাচুর্য দানকারী, মহাজ্ঞানী।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট:  ইমাম মাহদীর সৈনিকরা আল্লাহর প্রতি ঈমানে ও ভালবাসায় এবং তাঁর ধর্ম রক্ষায় এত নিবেদিত-প্রাণ যে তারা আল্লাহর পথে জিহাদ করতে ও জীবন দিতে সদা-প্রস্তুত। তারা কোনো ধরনের চোখরাঙানি ও তিরস্কারকে ভয় পায় না। আল্লাহ তাদের বৈশিষ্ট্যগুলো তুলে ধরতে গিয়ে বলছেন, তারা শত্রুদের মোকাবেলায় খুবই কঠোর এবং নিজেদের প্রতি দয়াদ্র ও পরস্পরের প্রতি বিনম্র।

ইমাম জাফর সাদিক(আ.) বলেছেন: ইমাম মাহদীর সৈনিকরা তার এত বেশী অনুগত থাকবে যে, দাসীরাও তার মনিবের প্রতি এত বেশী অনুগত নয়।

আরও বর্ণিত হয়েছে: ইমাম মাহদীর সৈনিকরা সেভাবে তাকে আগলে রাখতে যেভাবে মোমবাতির চারপাশে বা ফুলের চারপাশে মৌমাছি ঘিরে থাকে।

৩১৩জন একনিষ্ট সৈনিক প্রস্তুত হলেই আল্লাহর নির্দেশে ইমাম মাহদীর আবির্ভাব ঘটবে।

বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.) হতে বর্ণিত কোনো কোনো বর্ণনা অনুযায়ী, বনি ইসরাইলের ১২ জন নেতার মত শেষ নবী (সা.)'র উত্তরসূরী বা স্থলাভিষিক্ত হবেন ১২ জন এবং কিয়ামত পর্যন্ত এ ১২ জনই হবেন মুসলমানদের ইমাম বা নেতা। তাঁদের মধ্যে প্রথম হলেন আমিরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.) এবং শেষ নেতা হবেন হযরত ইমাম মাহদী (আ.)।

 

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য