خبرگزاری شبستان

پنج شنبه ۳۱ خرداد ۱۳۹۷

الخميس ٨ شوّال ١٤٣٩

Thursday, June 21, 2018

বিজ্ঞাপন হার

মদীনার ঐতিহাসিক জান্নাতুল বাকী কবরস্থান

স্পেশাল ডেস্ক: মদীনার জান্নাতুল বাকী মুসলিম জাহানের সবচেয়ে পবিত্রতম কবরস্থান। যেখানে শায়িত আছেন ইসলামের নক্ষত্রতূল্য ব্যক্তিত্বগণ। ঐতিহাসিক মদীনায় মসজিদুন্নবী ও রাসূলের (সা.) রওজা মোবারকের পার্শ্বে অবস্থিত এ কবরস্থানটি।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Tuesday, May 22, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 28996

চিনে মুসলমান শিক্ষার্থী ও তাদের বাবা-মাদের জন্য রোজা নিষিদ্ধ!
মাহদাভিয়াত বিভাগ: জিনজিয়াং কর্তৃপক্ষ মুসলমান শিক্ষার্থী ও তাদের বাবা-মাদের জন্য রমজানের রোযা রাখা নিষিদ্ধ করেছে।

চিনে মুসলমান শিক্ষার্থী ও তাদের বাবা-মাদের জন্য রোজা নিষিদ্ধ!        

মাহদাভিয়াত বিভাগ: জিনজিয়াং কর্তৃপক্ষ মুসলমান শিক্ষার্থী ও তাদের বাবা-মাদের জন্য রমজানের রোযা রাখা নিষিদ্ধ করেছে।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট:  চীনের উত্তর-পশ্চিমে জিনজিয়াং প্রদেশের কর্মকর্তারা পবিত্র রমজান মাসের রোজা রাখা থেকে বিরত থাকার অঙ্গীকার নামায় স্বাক্ষর করার জন্য উইঘুর মুসলিম শিক্ষার্থী ও তাদের বাবা-মাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

এই পদক্ষেপটি শিনজিয়াংয়ের উইঘুর মুসলিমদের ধর্মীয় ঐতিহ্যকে হ্রাস করার জন্য গ্রহণ করা হয়েছে।

চীনা কর্তৃপক্ষ রমজান উপলক্ষে সব রেস্তোরা খোলা থাকার এবং মসজিদে প্রবেশ না করার নির্দেশ দিয়েছে।

উপরন্তু, সরকারের সকল কর্মচারী ও অবসরপ্রাপ্তরা একটি অঙ্গীকার নামায় স্বাক্ষর করতে বাধ্য হয়েছে যাতে তারা রমজান মাসে রোজা না রাখে এবং নামাজ কায়েম না করে।

এই কর্মগুলি সমস্ত ধর্মীয় প্রতীক নির্মূলের লক্ষ্য পৌঁছানোর লক্ষ্যে মুসলমানদের ব্যক্তিগত জীবনে চীনের কর্তৃপক্ষের অভূতপূর্ব অভিব্যক্তির প্রতিফলন।

এক উইঘুরের ছাত্র বলে, "আমরা শিক্ষার্থী হওয়ার কারণে রোজা রাখতে পারি না, এবং আমাদের বাবামারও তাদের সন্তানদের উপস্থিতিতে ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালন করতে পারে না।

এদিকে পবিত্র রমজানের প্রাক্কালে উইঘুর মুসলিম ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস একটি বিবৃতি জারি করে চীনা সরকারকে উঘুরদের ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার নিশ্চিত করার জন্য আহ্বান জানিয়েছে।

উইগুর মুসলিম বিশ্ব কংগ্রেসের প্রধান বলেন: প্রতি বছর, রমজানে সীমাবদ্ধতা বৃদ্ধির কারণে, উইঘুর মুসলমানদের জন্য রমজান মাস ভয় ও উদ্বেগের কারণ হয়ে ওঠে।

 

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য