خبرگزاری شبستان

پنج شنبه ۲۴ آیان ۱۳۹۷

الخميس ٧ ربيع الأوّل ١٤٤٠

Thursday, November 15, 2018

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Tuesday, July 10, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 29141

ইমাম জাফর সাদীক (আ.) ইসলামের পূনর্জীবন দানকারী
মায়ারেফ বিভাগ: রাসূলের (সা.) পবিত্র আহলে বাইতের ৬ষ্ঠ পুরুষ এবং ইমামতিধারার ৬ষ্ঠ ইমাম ইমাম জাফর সাদীক (আ.) ইসলামের পূনর্জীবন দানকারী। তার যুগে ইসলামের জ্ঞান ও শিক্ষা সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছিল।

ইমাম জাফর সাদীক (আ.) ইসলামের পূনর্জীবন দানকারী

 

মায়ারেফ বিভাগ: রাসূলের (সা.) পবিত্র আহলে বাইতের ৬ষ্ঠ পুরুষ এবং ইমামতিধারার ৬ষ্ঠ ইমাম ইমাম জাফর সাদীক (আ.) ইসলামের পূনর্জীবন দানকারী। তার যুগে ইসলামের জ্ঞান ও শিক্ষা সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছিল।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: ১৪৮ হিজরির ২৫ শাওয়াল ইসলামের ইতিহাসে এক গভীর শোকাবহ দিন। কারণ এ দিনে শাহাদত বরণ করেন  বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র পবিত্র আহলে বাইতের সদস্য ও মুসলিম বিশ্বের প্রাণপ্রিয় প্রবাদপুরুষ ইমাম আবু আব্দুল্লাহ জাফর আস সাদিক (আ.)। অতীতের নবী-রাসূল এবং ইমামগণের জ্ঞান তথা ইসলাম ও এর প্রকৃত শিক্ষা তাঁরই উসিলায় বা তাঁরই মাধ্যমে বিকশিত হয়ে মুসলমানদের কাছে পৌঁছেছে।

রাসূলের (সা.) ওফাতের পর প্রতিকুল পরিস্থিতির কারণে মুসলমানরা ইসলামের গভীর জ্ঞান ও শিক্ষা থেকে বঞ্চিত ছিল। কিন্তু ইমামতিধারার ৬ষ্ঠ ইমাম ইমাম জাফর সাদীকের (আ.) যুগে চারিদিকে শিক্ষা ও জ্ঞান বিস্তারের অভিযান শুরু হয়, ইসলাম নতুন করে জীবন ফিরে পায়। তিনি প্রায় ৪ হাজার যোগ্য ছাত্র তৈরি করেছিলেন। তারা ইসলামের বিভিন্ন দিকে পারদর্শী ও অভিজ্ঞ হয়েছিলেন। 

তাঁর হাজার হাজার উচ্চ-শিক্ষিত ছাত্রের মধ্যে অনেক উচ্চ পর্যায়ের বিশেষজ্ঞ ও খ্যাতনামা বিজ্ঞানীও ছিলেন। রসায়ন বিজ্ঞানের জনক জাবির ইবনে হাইয়ান ছিলেন তাঁর ছাত্র।


দুই সুন্নি মাজহাবের প্রধান ইমাম আবু হানিফা ও ইমাম মালিক  ছিলেন এই নিষ্পাপ ইমামের প্রত্যক্ষ ছাত্র। আর সুন্নি মাজহাবের অন্য দুই ইমাম ছিলেন ইমাম জাফর সাদিকের ছাত্রের ছাত্র তথা পরোক্ষ ছাত্র।

 

নিজের শিক্ষক তথা এই মহান ইমামের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে গিয়ে ইমাম আবু হানিফা বলেছেন, 'যদি (জাফর ইবনে মুহাম্মাদের সান্নিধ্যের) ঐ দু’বছর না থাকত তবে নোমান (আবু হানিফা) ধ্বংস হয়ে যেত।  মানুষের মধ্যে (মত) পার্থক্যের বিষয়গুলো সম্পর্কে  তিনি সর্বাধিক জ্ঞান রাখেন। ' তিনি আরও বলেছেন, আমি জাফর ইবনে মুহাম্মাদ থেকে জ্ঞানী কোন ব্যক্তিকে দেখিনি।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য