خبرگزاری شبستان

یکشنبه ۲۸ مرداد ۱۳۹۷

الأحد ٨ ذو الحجّة ١٤٣٩

Sunday, August 19, 2018

বিজ্ঞাপন হার

সেই বোমা আমেরিকা সরবরাহ করেছে: সিএনএন

সম্প্রতি ইয়েমেনের একটি স্কুলবাসে সৌদি বিমান হামলায় যেসব শিশু নিহত হয়েছে সেই বোমা রিয়াদকে সরবরাহ করেছে আমেরিকা। মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন এ খবর দিয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Wednesday, August 08, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 29323

যেদিন কাবার ভূমি থেকে পৃথিবী বিস্তার লাভ করে
মায়ারেফ বিভাগ: পৃথিবীর ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ ও স্বরণীয় দিন হচ্ছে ২৫শে জিলক্বদ। কেননা রেওয়ায়েত ও ইতিহাসের ভাষ্য অনুয়ায়ী এদিনকে বলা হয় দাহউল আরদ্ব, তথা পৃথিবী বিস্তৃতি লাভের দিন। এদিন আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কাবা ঘরের ভূমি থেকে পৃথিবীকে প্রসারিত ও বসবাসের উপযোগী করে তুলেন।

যেদিন কাবার ভূমি থেকে পৃথিবী বিস্তার লাভ করে

 

মায়ারেফ বিভাগ: পৃথিবীর ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ ও স্বরণীয় দিন হচ্ছে ২৫শে জিলক্বদ। কেননা রেওয়ায়েত ও ইতিহাসের ভাষ্য অনুয়ায়ী এদিনকে  বলা হয় দাহউল আরদ্ব, তথা পৃথিবী বিস্তৃতি লাভের দিন। এদিন আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কাবা ঘরের ভূমি থেকে পৃথিবীকে প্রসারিত ও বসবাসের উপযোগী করে তুলেন।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: অভিধানিক দিক থেকে দাহ্‌ভ (دحو) এর অর্থ হচ্ছে প্রসারণ এবং অনেকে কোন জিনিসকে তার স্বস্থান হতে নাড়া দেয়ার অর্থে তফসির করেছেন। সুতরাং দাহউল আরদ্ব (دحو الارض)  (পৃথিবীর সম্প্রসারণ) এর অর্থ হচ্ছে যে, শুরুতে ভূপৃষ্ট পানি দ্বারা পরিপূর্ণ ছিল। এ পানি পর্যায়ক্রমে ভূপৃষ্ঠের বিভিন্ন গর্তে স্থান করে নেয় এবং পানির তলা হতে শুষ্ক ভূমি উঁকি দেয়। ফলে দিনের পর দিন ভূপৃষ্ঠ প্রসারিত হতে থাকে। আর হাদীসের বর্ণনা অনুযায়ী পৃথিবীর প্রসারিত হওয়ার কেন্দ্রস্থল ছিল পবিত্র কাবার ঘরের নিম্নদেশ। তাই কাবা ঘরের ভূমিই সর্বপ্রথম পৃথিবী ও আকাশের মধ্যে সংযোগ সৃষ্টি করেছিল।

সৃষ্টির শুরুতে পৃথিবী অসমতল ও বসবাস অযোগ্য ছিল। পরবর্তী বন্যা আকারের প্রচণ্ড বর্ষন ব্যাপক আকারে হতে থাকে ও ভূপৃষ্ঠকে ধুয়ে দেয় এবং উপত্যকাগুলোর পরিধি বাড়তে থাকে, আস্তে আস্তে ভূপৃষ্ঠ মানুষের বসবাস ও চাষাবাদের উপযোগী হয়ে ওঠে। আর এ সম্প্রসারণকেই দাহউল আরদ্ব বলা হয়।

এ কারণে ২৫শে জিলকদের গুরুত্বপূর্ণ দিনে ইবাদত-বন্দেগী ও রোজা পালনের মাধ্যমে অতিবাহিত করার উপর বিশেষ তাগিদ দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য