خبرگزاری شبستان

دوشنبه ۲ مهر ۱۳۹۷

الاثنين ١٤ المحرّم ١٤٤٠

Monday, September 24, 2018

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Sunday, August 12, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 29355

হজ্বের মৌসুমে ইমাম মুহাম্মাদ তাকী (আ.)
মায়ারেফ বিভাগ: ২২০ হিজরীর ৩০শে জিলকদ দিনটি ইসলামের ইতিহাসে অন্যতম শোকের দিন। কেননা এ দিনে শাহাদত বরণ করেছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা) এর পবিত্র আহলে বাইতের সদস্য নবম ইমাম হযরত জাওয়াদ বা ইমাম মুহাম্মাদ তাকী(আ)।

হজ্বের মৌসুমে ইমাম মুহাম্মাদ তাকী (আ.)

 

মায়ারেফ বিভাগ: ২২০ হিজরীর ৩০শে জিলকদ দিনটি ইসলামের ইতিহাসে অন্যতম শোকের দিন। কেননা এ দিনে শাহাদত বরণ করেছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা) এর পবিত্র আহলে বাইতের সদস্য নবম ইমাম হযরত জাওয়াদ বা ইমাম মুহাম্মাদ তাকী(আ)।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: ইমাম মুহাম্মাদ জাওয়াদ (আ.) হলেন রাসূলের (সা.) পবিত্র আহলে বাইতের (আ.) অন্যতম সদস্য। তিনি ইমামতিধারার ৯ম ইমাম এবং মানুষের হেদায়েত ও দিকনির্দেশনার জন্য মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে মনোনীত মাসুম ইমাম।

তিনি ২২০ হিজরীর ২৯ জিলকদ মাত্র ২৭ বছর বয়সে শাহাদত বরণ করেন।

জিলহজ্ব মাস হচ্ছে পবিত্র হজ্ব পালনের মাস। তাই আমরা এখন পবিত্র হজ্বের মৌসুমে ইমাম মুহাম্মাদ তাকীর (আ.) একটি ঘটনা পাঠকদের সম্মুখে তুলে ধরব-

ইমামের (আ.) এক সাহাবি মুসা বিন কাসেম বলেন: পবিত্র হজ্বের সময় আমি ইমাম মুহাম্মাদ তাকীর (আ.) সাথে ছিলাম। এমন সময় তাকে উদ্দেশ্য করে বললাম: হে ইমাম! আমি ইচ্ছা করছি যে, রাসূল (সা.) ও তার উত্তরাধিকারবর্গ তথা মাসুম ইমামগণের (আ.) পক্ষ থেকে পবিত্র কাবা শরিফ তাওয়াফ করব। এ কাজটি কি সঠিক হবে? জবাবে ইমাম (আ.) বলেন: হ্যা, নিশ্চয়ই এটা উত্তম কাজ। যদি সম্ভব হয় তাহলে আমাদের মাতামহ তথা মা ফাতিমার (আ.) নিয়্যাত করেও তাওয়াফ সম্পন্ন করবে। সূত্র: উসূলে কাফী, খণ্ড ৪র্থ, পৃ. ৩৭৪, হাদীস নং ২।

 

 

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য