خبرگزاری شبستان

سه شنبه ۲۹ مهر ۱۳۹۹

الثلاثاء ٤ ربيع الأوّل ١٤٤٢

Tuesday, October 20, 2020

বিজ্ঞাপন হার

ইরাকের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা শহরের ইরানি কনস্যুলেটে দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ জানাতে আজ (শনিবার) ভোরে তেহরানে নিযুক্ত ইরাকি রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। এ সময় ইরানি কনস্যুলেটের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরাকি নিরাপত্তা কর্মীদের অবহেলার প্রতিবাদ জানানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Thursday, August 23, 2018 নির্বাচিত সংবাদ : 29433

ইরানবিরোধী নীতি পরিবর্তন করুন: ট্রাম্পকে ইরাকি নেতা
ইরানবিরোধী নীতি পরিবর্তনের জন্য আমেরিকার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইরাকের ন্যাশনাল উইজডম মুভমেন্টের প্রধান সাইয়্যেদ আম্মার হাকিম। তিনি আজ (বুধবার) ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ঈদের নামাজের খুতবায় এ আহ্বান জানান।

ইরানবিরোধী নীতি পরিবর্তন করুন: ট্রাম্পকে ইরাকি নেতা

 

ইরানবিরোধী নীতি পরিবর্তনের জন্য আমেরিকার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইরাকের ন্যাশনাল উইজডম মুভমেন্টের প্রধান সাইয়্যেদ আম্মার হাকিম। তিনি আজ (বুধবার) ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ঈদের নামাজের খুতবায় এ আহ্বান জানান।

ইরাকের এই প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ বলেন, হুমকি ও অবরোধের নীতি মধ্যপ্রাচ্যে কেবল যুদ্ধ ও সহিংসতাকেই উসকে দেবে। তিনি আরও বলেন, ইরান সমস্যা ও জটিলতার সম্মুখীন হলে ইরাক যে এর বাইরে থাকবে তা নয়।  ইরাক ও ইরানের ভৌগোলিক ও সাংস্কৃতিক অবস্থান পরস্পরকে শক্ত বন্ধনে আবদ্ধ করেছে বলে তিনি জানান।

আম্মার হাকিম বলেন, "আমরা ইরানসহ বিভিন্ন দেশ ও জাতির বিরুদ্ধে অন্যায় অবরোধের বিরোধী এবং এ ধরনের অবরোধের কারণে ইরাকের জাতীয় স্বার্থ বিনষ্টের সুযোগ দেওয়া হবে না।" আম্মার হাকিম হচ্ছেন ইরাকের প্রভাবশালী ধর্মীয় নেতা ও রাজনীতিবিদ আব্দুল আজিজ আল হাকিমের ছেলে। গত সংসদ নির্বাচনেও তার নেতৃত্বাধীন রাজনৈতিক জোট ভালো ফল করেছে।

এর আগেও ইরাকের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও জোট ইরানবিরোধী মার্কিন পদক্ষেপের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। 

গত ৮ মে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের শান্তিপূর্ণ পরমাণু কর্মসূচি সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেছেন এবং ইরানের তেল বিক্রির সুযোগ পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন।

বিশ্লেষণও নোট :
|
|
|

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য