خبرگزاری شبستان

جمعه ۳۱ فروردین ۱۳۹۷

الجمعة ٥ شعبان ١٤٣٩

Friday, April 20, 2018

বিজ্ঞাপন হার

কেন ইমাম হুসাইনকে হেদায়েতের আলো এবং মুক্তির তরী বলা হয়?

মাহদাভিয়াত বিভাগ: চতুর্থ হিজরির তৃতীয় শা’বান মানবজাতি ও বিশেষ করে, ইসলামের ইতিহাসের এক অনন্য ও অফুরন্ত খুশির দিন। কারণ, এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)’র প্রাণপ্রিয় দ্বিতীয় নাতি তথা বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমা (সা.) ও বিশ্বাসীদের নেতা তথা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হুসাইন (আ.)।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Wednesday, October 01, 2014 নির্বাচিত সংবাদ : 3828

আমিরুল মু’মিনিন আলীর (আ.) জ্ঞানগর্ভ ৭টি নসিহত
স্পেশাল ডেস্ক: রাসূলের (সা.) সুযোগ্য স্থলাভিষিক্ত এবং ইমামতিধারার প্রথম ইমাম হযরত আলী ইবনে আবি তালিবের (আ.) জ্ঞানগর্ভ ৭টি নসিহত আমরা পাঠকদের জ্ঞাতার্থে এখানে তুলে ধরছি।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: হযরত আলী ইবনে আবি তালিব (আ.) জ্ঞান ও প্রজ্ঞায় ছিলেন রাসূলের (সা.) প্রতিচ্ছবি। তার দিকনির্দেশনা ও নসিহত আমাদের জীবনে বাস্তবায়নের মাধ্যমে ইহলৌকিক ও পারলৌকিক কল্যাণ হাসিল করা সম্ভব। নিম্নে আমরা একটি রেওয়ায়েত তুলে ধরছি; যেখানে আমিরুল মু’মিনিন আলী (আ.) ৭টি জ্ঞানগর্ভ ও গুরুত্বপূর্ণ নসিহতের কথা তুলে ধরেছেন।

আমিরুল মু’মিনিন আলী (আ.) বলেছেন:

قَالَ علیه السلام بِکَثْرَةِ الصَّمْتِ تَکُونُ الْهَیْبَةُ وَ بِالنَّصَفَةِ یَکْثُرُ الْوَاصِلُونَ وَ بِالْإِفْضَالِ تَعْظُمُ الْأَقْدَارُ وَ بِالتَّوَاضُعِ تَتِمُّ النِّعْمَةُ وَ بِاحْتِمَالِ الْمُؤَنِ یَجِبُ السُّؤْدُدُ وَ بِالسِّیرَةِ الْعَادِلَةِ یُقْهَرُ الْمُنَاوِئُ وَ بِالْحِلْمِ عَنِ السَّفِیهِ تَکْثُرُ الْأَنْصَارُ عَلَیْهِ

অর্থাৎ-

১- গাম্ভীর্যতার মাধ্যমে মানুষের আত্ম-সম্মান বৃদ্ধি পায়

২- সুবিবেচনার মাধ্যমে বন্ধুত্ব গভীর হয়

৩- দয়া ও মহানুভবতার মাধ্যমে মানুষের সম্মান ও মর্যাদা বৃদ্ধি লাভ করে

৪- বিনয় ও নম্রতার মাধ্যমে নেয়ামত বর্ধিত হয়

৫- দান ও বদন্যতার কারণে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করা সম্ভব

৬- ন্যায়বিচারের মাধ্যমে শত্রুদের পরাজিত করা সম্ভব

৭- ধৈর্য ও সহিঞ্চুতার মাধ্যমে বন্ধু ও সমর্থক বৃদ্ধি পায়

সূত্র: নাহজুল বালাগা, হিকমত নং ২২৪

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য