خبرگزاری شبستان

دوشنبه ۱ آیان ۱۳۹۶

الاثنين ٣ صفر ١٤٣٩

Monday, October 23, 2017

বিজ্ঞাপন হার

প্রতিটি দিনই আশুরা আর প্রতিটি ভূমিই কারবালা হওয়ার দর্শন

মাহদাভিয়াত বিভাগ: ইমাম হুসাইন (আ.)-এর সংগ্রাম ছিল বিশ্বের ইতিহাসে ব্যাপকতম এবং বহুমাত্রিক আন্দোলন যার ব্যাপ্তি শুধুই যে আশুরার দিনের অন্যান্য মহান ঘটনাকে ছাপিয়ে গেছে তা-ই নয় বরং এই উক্তিটি উল্লেখ করাই যথার্থ যে, প্রতিটি দিনই আশুরা আর প্রতিটি ময়দানই কারবালা।

নির্বাচিত সংবাদ

মতামতজরিপ  :   Sunday, November 09, 2014 নির্বাচিত সংবাদ : 4025

ফাতেমা যাহরার (আ.) প্রতি রাসূলের (সা.) নসিহত
স্পেশাল ডেস্ক: রাসূলুল্লাহ (সা.) স্বীয় কন্যা হযরত ফাতেমা যাহরার (আ.) প্রতি এক গুরুত্বপূর্ণ নসিহতে বলেন, ‘হে ফাতেমা! চারটি আমল যথা: কোরআন খতম, নবী-রাসূলের (আ.) শাফায়াত গ্রহণ, মু’মিনদের সন্তুষ্ট এবং উমরা হজ্ব সম্পন্ন না করে ঘুমাবে না।

ফাতেমা যাহরার (আ.) প্রতি রাসূলের (সা.) নসিহত

 

স্পেশাল ডেস্ক: রাসূলুল্লাহ (সা.) স্বীয় কন্যা হযরত ফাতেমা যাহরার (আ.) প্রতি এক গুরুত্বপূর্ণ নসিহতে বলেন, ‘হে ফাতেমা! চারটি আমল যথা: কোরআন খতম, নবী-রাসূলের (আ.) শাফায়াত গ্রহণ, মু’মিনদের সন্তুষ্ট এবং উমরা হজ্ব সম্পন্ন না করে ঘুমাবে না।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: পাঠকদের উদ্দেশ্যে আজ আমরা একটি গুরুত্বপূর্ণ রেওয়ায়েত তথা হাদীস বর্ণনা করব; যা অত্যন্ত প্রসিদ্ধ ও নির্ভরযোগ্য। এ হাদীসটি সরাসরি নবী নন্দিনী হযরত ফাতেমা যাহরা (আ.) থেকে বর্ণিত হয়েছে।

হযরত ফাতেমা যাহরা সালামুল্লাহ আলাইহা বর্ণনা করেছেন যে, এক রাতে আমি ঘুমানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম এমন সময় রাসূল (সা.) আমার নিকট এসে বলেন:

یا فاطِمَةُ لا تَنامى إلاّ وَ قَدْ عَمِلْتِ أَرْبَعَةً: خَتَمْتِ القُرآنَ، وَ جَعَلْتِ الاْنـْبِیاءَ شُفَعائَکِ، وَ أَرْضَیتِ الْمُؤْمِنینَ عَنْ نَفْسِکِ، وَ حَجَجْتِ وَ اعْتَمَرْتِ،

قالَ هذا وَ أَخَذَ فِى الصَّلوةِ، فَصَبَرْتُ حَتّى أَتَمَّ صَلاتَهُ، قُلتُ: یا رَسُولَ اللّهِ أَمَرْتَ بِأَرْبَعَة لا أَقْدِرُ عَلَیها فى هذَا الْحالِ! فَتَبَسَّمَ (صل الله علیه وآله وسلم) وَ قال: إِذا قَرَأْتِ قُل هُوَ اللّهُ أَحَدٌ ثَلاثَ مَرّات فَکَأنَّکِ خَتَمْتِ القُرْآنَ، وَ إِذا صَلَّیتِ عَلَىَّ وَ عَلَى الاْنـْبِیاءِ قَبْلى کُنّا شُفَعاءَکِ یوْمَ الْقِیمَةِ، وَ إِذا اسْتَغْفَرْتِ لِلْمُؤْمِنینَ رَضُوا کُلُّهُمْ عَنْکِ، وَ إِذا قُلْتِ: سُبْحانَ اللّهِ وَ الْحَمْدُ لِلّهِ وَ لا إِلَهَ إِلاَّ اللّهُ وَ اللّهُ أَکْبَرُ، فَقَدْ حَجَجْتِ وَ اعْتَمَرْتِ.

অর্থাৎ হে ফাতেমা! ততক্ষণ পর্যন্ত ঘুমাবে না, যতক্ষণ পর্যন্ত ৪টি আমল সম্পন্ন না করবে; যথা: কোরআন খতম, নবী-রাসূলের (আ.) শাফায়াত গ্রহণ, মু’মিনদের সন্তুষ্ট এবং উমরা হজ্ব পালন।

এ নসিহত করার পর তিনি নামাযের জন্য দাড়ালেন; আমি তার নামায শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত ধৈর্যধারণ করলাম। অত:পর তার নামায শেষ হওয়ার সাথে সাথে জিজ্ঞাসা করলাম, হে রাসূল (সা.) আপনি যে চারটি আমলের কথা বললেন, তা এক রাতে সম্পন্ন করা সম্ভব না।

এ কথা শোনার পর রাসূল (সা.) মুসকি হেসে বললেন: যদি তিন বার সূরা ইখলাস পাঠ কর তাহলে একবার কোরআন খতমের সওয়াব পাবে, যদি দরুদ শরীফ পাঠ কর, তাহলে কিয়ামতের দিন নবী-রাসূলের শাফায়াত গ্রহণ করতে পারবে, যদি মু’মিনদের জন্য দোওয়া কর তাহলে তাদের সন্তুষ্টি অর্জন করতে পারবে আর যদি একবার সুবহানাল্লাহ ওয়াল হামদুলিল্লাহ ওয়া লাইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার তাহলে উমরা হজ্বের সওয়াব পাবে।

সূত্র: বিহারুল আনওয়ার, ৪র্থ খন্ড, পৃ. ৩০৪

মন্তব্য

বইপরিচিতি  :
 ভিডিও সংবাদ:
অন্যান্যলিংক :
আমাদের সম্পর্কে

মন্তব্য