নির্বাচিত সংবাদ : 29443
মতামতজরিপ  :    ۱۳۹۷/۶/۳ - ۰۰:۲۴

গাদীর দিবসে ইসলাম পূর্ণতা লাভ করেছে
মায়ারেফ বিভাগ: ইসলামের ইতিহাসে ১৮ই জিলহজ্ব হচ্ছে অত্যন্ত গুরুত্ববহ ও ফজিলতপূর্ণ দিবস; যে দিনটি ঐতিহাসিক গাদীর দিবস নামে পরিচিত। এ দিনে রাসূল (সা.) আমিরুল মু'মিনিন আলীকে (আ.) তার পরবর্তী স্থলাভিষিক্ত হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন।

গাদীর দিবসে ইসলাম পূর্ণতা লাভ করেছে

 

মায়ারেফ বিভাগ: ইসলামের ইতিহাসে ১৮ই জিলহজ্ব হচ্ছে অত্যন্ত গুরুত্ববহ ও ফজিলতপূর্ণ দিবস; যে দিনটি ঐতিহাসিক গাদীর দিবস নামে পরিচিত। এ দিনে রাসূল (সা.) আমিরুল মু'মিনিন আলীকে (আ.) তার পরবর্তী স্থলাভিষিক্ত হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন।

শাবিস্তান বার্তা সংস্থার রিপোর্ট: ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের শীর্ষ আলেম ও বিশিষ্ট মুফাসসেরে কোরআন হযরত হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন মুহসেন কারআতি বলেছেন যে, ১৮ই জিলহজ্ব তথা গাদীর দিবসে ইসলাম পূর্ণতা লাভ করেছে এবং পবিত্র কোরআনের ঘোষণা অনুযায়ী এ দিন আল্লাহ তায়ালা মানুষদের জন্য তার নেয়ামতের পূর্ণতার ঘোষণা দিয়েছেন। কেননা এ দিন তথা রাসূল (সা.) যখন বিদায় হজ্ব শেষে ১৮ই জিলহজ্ব যখন মক্কা থেকে মদীনার প্রত্যাবর্তন করছিলেন, তখন আল্লাহর নির্দেশে আলী ইবনে আবি তালিবকে (আ.) তার স্থলাভিষিক্ত ও খলিফা হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন। অত:পর সমস্ত সাহাবীরা আলীর (আ.) হাতে বাইয়াত গ্রহণ করেছিলেন। তাই এ দিনটি মুসলিম উম্মাহর ভবিষ্যত নির্ধারিত হয়েছিল।

রাসূলের (সা.) এ ঘোষণার পর পরই আল্লাহ তায়ালা ইসলামকে তার মনোনীত ধর্ম হিসেবে ঘোষণা দেন এবং ইসলাম ধর্মের পরিপূর্ণতা সম্বলিত আয়াত নাজিল করেন।

অর্থাৎ আজ আমি তোমাদের জন্য ইসলামকে পরিপূর্ণ এবং তোমাদের উপর আমার নেয়ামতের পূর্ণতা দান করছি। আর ইসলামকে আমার মনোনীত ধর্ম হিসেবে নির্বাচন করছি। সূরা মায়েদা: ৩ নং আয়াত।

সুতরাং ইসলামের এ গুরুত্বপূর্ণ দিন সম্পর্কে প্রয়োজনীয় জ্ঞান অর্জন করা প্রত্যেক মুসলমানের উপর ঈমানি দায়িত্ব হিসেবে বিবেচিত।